মুসলিম বিশ্বআরও »
পাকিস্তানের সংবিধানের অনুচ্ছেদ ৬৩(এ) ধারার ওপর প্রেসিডেন্সিয়াল রেফারেন্সে মতামত জানিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। বিভক্ত রায়ে সংখ্যাগরিষ্ঠ বিচারক বলেছেন, যেসব এমপি দলত্যাগী হবেন, পার্লামেন্টে তাদের ভোট গণনা করা হবে না। এর ফলে পাঞ্জাবে আবার ক্ষমতায় ফিরতে পারে ইমরান থানের দল পিটিআই। এ সিদ্ধান্তের পক্ষে ছিলেন সুপ্রিম কোর্টের তিনজন বিচারপতি। এর বিরোধী ছিলেন দু’জন। সংখ্যাগরিষ্ঠ বিচারক তাদের রায়ে বলেছেন, সংবিধানের ৬৩(এ) ধারার অধীনে চারটি ক্ষেত্রে দলীয় সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে ভোট গণনা করা হবে না। এই চারটি ক্ষেত্র হলো প্রধানমন্ত্রী ও মুখ্যমন্ত্রী নির্বাচন। আস্থা ভোট বা অনাস্থা ভোট। সংবিধান সংশোধনী বিল। অর্থ সংক্রান্ত বিল। সম্প্রতি সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের বিরুদ্ধে পার্লামেন্টে অনাস্থা প্রস্তাব উত্থাপন করা হয়। সেই প্রস্তাব পাস হওয়ায় তিনি ক্ষমতাচ্যুতও হন। কিন্তু তার আগে তার দল থেকে বেশ কিছু এমপি বেরিয়ে গিয়ে বর্তমানে ক্ষমতাসীন জোট বা তখনকার বিরোধী জোটের সঙ্গে ইমরান খানের বিরুদ্ধে ভোট দেয়ার ঘোষণা দেন। এতে ওই সময় ইমরান খানের পতন নিশ্চিত হয়ে যায়। এর পরে সুপ্রিম কোর্টে সংবিধানের অনুচ্ছেদ ৬৩(এ) ধারায় মতামত চেয়ে প্রেসিডেন্সিয়াল রেফারেন্স পাঠান প্রেসিডেন্ট আরিফ আলভি। সুপ্রিম কোর্টে এ নিয়ে চুলচেরা বিম্লেষণ করেন ৫ জন বিচারকের প্যানেল। এর মধ্যে আছেন প্রধান বিচারপতি উমর আতা বান্দিয়াল, বিচারক ইজাজুল আহসান, বিচারক মুনিব আখতার, বিচারক মাজহার আলম খান মিয়াখেল এবং বিচারক জামাল খান মান্দোখাইল। মঙ্গলবার ওই রেফারেন্সের চূড়ান্ত মতামত দেন …


ধর্ম-দর্শনআরও »
বিশ্বের বিভিন্ন দেশে আজ সোমবার উদযাপিত হচ্ছে ঈদুল ফিতর। মধ্যপ্রাচ্যের দেশ সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত (ইউএই), দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার ইন্দোনেশিয়া-মালয়েশিয়া, ইউরোপ, আমেরিকাসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে উদযাপিত হচ্ছে মুসলিমদের অন্যতম বৃহৎ উৎসব ঈদুল ফিতর। এ উপলক্ষে সোমবার (২ মে) সকালে এসব দেশের মুসল্লিরা বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে ঈদের নামাজ আদায় করেছেন। গত শনিবার সৌদির আকাশে পবিত্র শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা যায়নি। যার কারণে রোববার রমজান মাসের ৩০তম দিন পূর্ণ হয়। আর সোমবার এসব দেশে ঈদুল ফিতর উদযাপিত হচ্ছে। মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোর পাশাপাশি পশ্চিমা বিশ্বের বেশ কয়েকটি দেশেও আজ ঈদুল ফিতর উদযাপন করা হচ্ছে। সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত (ইউএই), যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, অস্ট্রেলিয়া, কুয়েত, ইরাক, ইয়েমেন, মিশর, তিউনিশিয়া, সুদান, আলজেরিয়া, মৌরিতানিয়া, তুরস্ক, ইন্দোনেশিয়া, মালয়েশিয়া, সিরিয়াসহ বিশ্বের বহু দেশে সোমবার ঈদুল ফিতর উদযাপিত হচ্ছে। এসব দেশে সোমবার সকালে ঈদের নামাজের জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। অন্যদিকে বাংলাদেশের আকাশে রোববার ১৪৪৩ হিজরি সনের শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা যায়নি। ফলে সোমবার ৩০ রোজা পূর্ণ হবে। এরপর মঙ্গলবার সারা দেশে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপিত হবে। এছাড়া ভারতেও রোববার শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা যায়নি। ফলে সোমবার পবিত্র রমজান মাসের ৩০তম রোজা রাখবেন ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা। এরপর মঙ্গলবার দেশটির মুসল্লিরা পালন করবেন খুশির ঈদ। একইসঙ্গে ইরান ও পাকিস্তানে রোববার শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা না যাওয়ায় সোমবার দেশ দু’টিতে ৩০তম রমজান পালিত …

স্বাস্থ্যআরও »
ওষুধের জেনেরিক নাম ‘মলনুপিরাভিয়ার’। এটি একেবারেই কোভিডের চিকিৎসার জন্য তৈরি প্রথম ট্যাবলেট বলে বিজ্ঞানীদের দাবি। আর বিশ্বের প্রথম দেশ হিসেবে লক্ষণযুক্ত নভেল করোনাভাইরাসের চিকিৎসার জন্য অ্যান্টিভাইরাল পিলকে অনুমোদন দিয়েছে যুক্তরাজ্যের ওষুধ নিয়ন্ত্রকরা। এর মধ্য দিয়ে মুখে খাওয়ার ওষুধে করোনার চিকিৎসা শুরু হলো। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে যাদের শারিরীক অবস্থা ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে তাদের দিনে দুই ডোজ করে মলনুপিরাভির নামের এই ট্যাবলেটটি প্রদান করা হবে বিবিসির এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে। ক্লিনিকাল ট্রায়ালে দেখা গেছে, ফ্লুয়ের চিকিৎসার জন্য তৈরি করা এই ওষুধটি করোনার কারণে হাসপাতালে ভর্তি এবং মৃত্যুর হার কমিয়ে দেয় অর্ধেক। যুক্তরাজ্যের হেলথ সেক্রেটারি সাজিদ জাভিদ বলেন, এই চিকিৎসা ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় থাকা রোগীদের জন্য ‘গেমচেঞ্জার’। এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, আজকের দিনটি আমাদের দেশের জন্য ঐতিহাসিক। কারণ যুক্তরাজ্য এখন বিশ্বের প্রথম দেশ যারা সেই অ্যান্টিভাইরালটিকে অনুমোদন দিলো যেটা করোনা হলে বাসায় নিয়ে যাওয়া যাবে। যুক্তরাষ্ট্রের ওষুধ কোম্পানী মার্ক, শার্প অ্যান্ড ডোহমি(এমএসডি) এবং রিজব্যাক বায়োথেরাপিউটিকস যৌথভাবে মলনুপিরাভির নামের এই ওষুধটি তৈরি করে। এটিই করোনা রোগীদের জন্য প্রথম ওষুধ যেটা ইনজেকশনের মাধ্যমে বা শিরায় দেওয়ার মাধ্যমে গ্রহণের বদলে মুখে খেতে হবে। ব্রিটেনের ওষুধ নিয়ন্ত্রকরা বলেছেন, তারা বিশ্বের প্রথম মুখে খাওয়ার ওষুধ মুলনুপিরাভিরকে অনুমোদন দিয়েছে কারণ এটি হালকা থেকে মাঝারি ধরনের করোনাভাইরাসের সংক্রমণে যাদের পরিস্থিতি খারাপ হওয়ার ঝুঁকি আছে তাদের হাসপাতালে ভর্তি এবং মৃত্যুর ঝুঁকি কমিয়েছে।
গ্যালারীআরও »
ভিডিওআরও »
Let’s talk to make a change
Let’s talk to make a change
Let’s talk to make a change
Back to top button