ব্রিটেনে করোনার ভয়াবহ তান্ডব, স্কুল বন্ধ থাকতে পারে আরো তিন মাস

ব্রিটেনে ভয়ঙ্কর রূপ নিয়েছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। আজ বুধবার দেশটিতে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ১ হাজার ৮শ’ ২০ জনের মৃত্যু হয়েছে। গত বছরের মার্চে করোনাভাইরাস মহামারী শুরুর পর এই প্রথম দেশটিতে একদিনে এক হাজার আটশ লোকের মৃত্যু অতিক্রম করল। যুক্তরাজ্যের স্বাস্থ্য বিভাগ এই তথ্য নিশ্চিত করেছে। এর আগে গতকাল ১৯ জানুয়ারি সর্বোচ্চ ১ হাজার ৬শ’ ১০ জনের মৃত্যু হয়েছিল। এ পর্যন্ত মোট মৃতের সংখ্যা ৯৩ হাজার ২শ’ ৯০ জন। তবে দেশটিতে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ধীরে ধীরে কিছুটা কমতে শুরু করেছে। আজ বুধবার করোনায় নতুন করে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন ৩৮ হাজার ৯০৫ জন। করোনা ঠেকাতে যুক্তরাজ্যজুড়ে ধাপে ধাপে ভ্যাকসিন দেয়া হচ্ছে।
এদিকে ব্রিটেনে ইস্টার ছুটির দিন পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকার শঙ্কা বাড়ছে, যার অর্থ শিশুরা ক্লাসরুম থেকে দূরে কাটাবে আরো তিন মাস। বরিস জনসন করোনা সংক্রমণ রোধে প্রথম দিকে সময় বাড়িয়ে ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝি পর্যন্ত স্কুলগুলো বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছিলেন, কিন্তু তারপর লকডাউন বিধিনিষেধ না বাড়ানোর সিদ্ধান্ত দিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন। মন্ত্রীরা গত মঙ্গলবার ইঙ্গিত দেন যে, লকডাউন ও নিষেধাজ্ঞা মার্চের শুরুর দিক থেকে ধীরে ধীরে তুলে নেয়া হবে।
বিদ্যালয়গুলো আবার চালু হবে কিনা জানতে চাইলে স্বাস্থ্য সচিব ম্যাট হ্যানকক বলেছেন: ‘আমাদের পরিসংখ্যানগুলোতে নজর রাখতে হবে’। তিনি আরো যোগ করেন, এটি মৃত্যুর সংখ্যা এবং ন্যাশনাল হেলথ সার্ভিসের চাপের ওপর নির্ভর করে। হ্যাঁ, ভ্যাকসিন রোলআউট পরিকল্পনা অনুযায়ী হবে এবং কোনও নতুন প্রক্রিয়া নেই।
একটি বড় একাডেমি চেইনের নেতা বলেছেন, বাস্তবতা হ’ল, স্কুলগুলো এপ্রিলের শুরুর ইস্টার হলিডে পর্যন্ত বেশিরভাগ শিশুর জন্য বন্ধ থাকবে। ব্রিটেনজুড়ে ৪৮টি স্কুল পরিচালনাকারী ওয়াসিস একাডেমি চেইনের প্রধান স্টিভ চালকে বলেন: ‘আমি মনে করি না ইস্টার শেষ না হওয়া পর্যন্ত স্কুলগুলো আবার চালু হবে। ‘আমি মনে করি, তারা দ্বিতীয়ার্ধের মেয়াদও মিস করবে’। তিনি আরো যোগ করেন, অনেক শিক্ষক স্কুলে করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হওয়া নিয়ে উদ্বিগ্ন এবং আবহাওয়া উষ্ণ হলে এবং শিশুদের বাইরে নিয়ে যেতে পারলে তারা ক্লাসরুমে ‘নিরাপদ’ এবং ‘আরও আত্মবিশ্বাসী’ বোধ করবেন।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Back to top button
Close