মার্চের পর পে-রোল থেকে বাদ ৬ লাখ ৯৫ হাজার কর্মী

যুক্তরাজ্যে বেকারত্বের হার বেড়েছে ৪ শতাংশেরও বেশি

ফার্লো স্কিম শেষ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে কর্মসংস্থানে দ্রুত পতন দেখা দেবে

নভেল করোনাভাইরাসের কারণে অর্থনৈতিক পতনের প্রেক্ষাপটে জুলাইয়ে যুক্তরাজ্যের বেকারত্বের হার বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪ শতাংশেরও বেশি। মঙ্গলবার প্রকাশিত দাপ্তরিক উপাত্ত অনুযায়ী, জুলাইয়ের শেষ নাগাদ তিন মাসে বেকারত্বের হার বেড়েছে ৪ দশমিক ১ শতাংশ। এর আগের প্রান্তিকে এ হার ছিল ৩ দশমিক ৯ শতাংশ।
ব্রিটেনের জাতীয় পরিসংখ্যান দপ্তর (ওএনএস) এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, আগস্টে ব্রিটেনে বেকারত্ব সুবিধার জন্য ২৭ লাখ আবেদন করা হয়েছে। এ হিসাবে মার্চে লকডাউন ঘোষণার পর থেকে বেকারত্ব সুবিধার জন্য আবেদন বেড়েছে ১২১ শতাংশ। এছাড়া মার্চের পর যুক্তরাজ্যের পে-রোল থেকে বাদ দেয়া হয় ৬ লাখ ৯৫ হাজার কর্মীকে।
এ বিষয়ে ওএনএসের অর্থনৈতিক পরিসংখ্যানের পরিচালক ড্যারেন মরগান বলেন, আগস্টে ফের পে-রোলে কর্মীদের সংখ্যা কমেছে এবং জুলাইয়ে তীব্রভাবে বেড়েছে বেকারত্ব। বিশ্লেষকরা মনে করছেন, সামনের মাসগুলোয় পরিস্থিতি আরো খারাপের দিকে যাবে। কারণ অক্টোবরেই সরকারের ফার্লো স্কিম শেষ হতে যাচ্ছে। আর এ স্কিমের আওতায় বেতন পরিশোধ করা হচ্ছিল এক কোটির মতো কর্মীকে।
ক্যাপিটাল ইকোনমিক রিসার্চ গ্রুপের যুক্তরাজ্যের প্রধান অর্থনীতিবিদ পল ডেলস বলেন, ফার্লো স্কিম শেষ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে কর্মসংস্থানে দ্রুত পতন দেখা দেবে। একই সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়বে বেকারত্বের হার।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Back to top button
Close