ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর অন্তঃসত্ত্বা বান্ধবীও করোনা আক্রান্ত

মাত্র মাস খানেক আগেই ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন ঘোষণা দিয়েছিলেন, খুব শিগগিরই অন্তঃসত্ত্বা বান্ধবী কেরি সাইমন্ডসকে বিয়ে করতে যাচ্ছেন; কিন্তু এক সপ্তাহের ব্যবধানে এখন সব কিছু ওলট-পালট হতে চলেছে। ২৭ মার্চ প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী। তার এক সপ্তাহের মাথায় বরিস জনসনের অন্তঃসত্ত্বা বান্ধবীর করোনা আক্রান্তের খবর এলো। কেরি সাইমন্ডস আজ দিনের শুরুতেই টুইটারে এক পোস্টের মাধ্যমে জানিয়েছেন, গত সাতদিন তিনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বিছানাশায়ী।

পাঁচ সপ্তাহ আগেই কেরি সাইমন্ডস এবং বরিস জনসন ঘোষণা দেন, তারা বাবা-মা হতে যাচ্ছেন এবং এই গ্রীষ্মেই বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হতে যাচ্ছেন। কিন্তু করোনাভাইরাস এখন সব কিছু অনিশ্চয়তার মধ্যে ঠেলে দিল তাদের।
করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন আইসোলেশনে যেতে বাধ্য হন। ৩২ বছর বয়সী কেরি সাইমন্ডসও এক সপ্তাহ আগে থেকেই করোনায় আক্রান্ত। কিন্তু সেটা আজ তিনি জানালেন টুইটারের মাধ্যমে। টুইটারে তিনি লিখেন, ‘গত একটি সপ্তাহ আমি করোনাভাইরাসের মূল উপসর্গ নিয়েই বিছানাশায়ী হয়ে আছি। তবে আমার পরীক্ষার প্রয়োজন নেই। এক সপ্তাহ বিশ্রাম নেয়ার পর আমি শক্তি ফিরে পাচ্ছি এবং শরীরও অনেকটা সেরে উঠছে।’
পরের টুইটেই তিনি লিখেন, ‘অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার কারণে কভিড-১৯ হচ্ছে খুবই দুঃশ্চিন্তার বিষয়। অন্যসব অন্তঃসত্ত্বা নারীদের আমি বলবো, আপনার সর্বশেষ আপডেট করা প্রতিটি গাইডলাইন অনুরসরণ করে চলার চেষ্টা করবেন। যেটা আমি পেয়েছি নির্ভরযোগ্য সূত্র থেকে।’
ব্রিটেনের প্রধান মেডিকেল অফিসার ক্রিস হুইটির মতে, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলে অন্তঃসত্ত্বা নারীরা খুব ঝুঁকির মধ্যে পড়ে যান। সর্বশেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ব্রিটেনে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ৪১ হাজার ৯০৩ জন। এর মধ্যে মৃত্যুবরণ করেছেন ৪৩১৩জন।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Back to top button
Close