অ্যাসাঞ্জকে যুক্তরাষ্ট্রের হাতে তুলে দিচ্ছে ব্রিটেন

উইকিলিকসের প্রতিষ্ঠাতা জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জকে যুক্তরাষ্ট্রের হাতে তুলে দিতে রাজি আছে ব্রিটেন। সেখানে সামরিক গোপন তথ্য ফাঁসের অভিযোগে ১৭৫ বছর জেল হতে পারে তার। তাকে ট্রাম্প প্রশাসনের হাতে তুলে দিতে এক অনুমতিপত্রে সই করেছেন ব্রিটিশ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাজিদ জাভিদ। তবে আদালত এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে বলে বৃহস্পতিবার বিবিসি রেডিওকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন তিনি। খবর দ্য গার্ডিয়ান।

ব্রিটিশ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমরা অ্যাসাঞ্জের বৈধ প্রত্যর্পণের একটি অনুরোধ পেয়েছি, আমি সেটায় সই করেছি। তবে এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আদালতের হাতে। শুক্রবার অ্যাসাঞ্জের প্রত্যর্পণ বিষয়ে আদালতে শুনানি অনুষ্ঠিত হবে। মঙ্গলবার উইকিলিকস প্রতিষ্ঠাতাকে ফিরিয়ে দিতে যুক্তরাজ্যকে আনুষ্ঠানিকভাবে অনুরোধ জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের বিচার বিভাগ।

২০০৬ সালে উইকিলিকস প্রতিষ্ঠা করে যুক্তরাষ্ট্রসহ বিশ্বের বেশ কয়েকটি দেশের গোপন সরকারি নথি প্রকাশ করেন জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জ। ২০১২ সালে হয়রানির অভিযোগ আনা হলে প্রত্যর্পণ এড়াতে তিনি লন্ডনের ইকুয়েডর দূতাবাসে আশ্রয় নেন। ২০১৭ সালে ধর্ষণ মামলা প্রত্যাহার করা হলেও আদালতে হাজিরা না দেয়ায় অ্যাসাঞ্জকে বহুবার গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছে যুক্তরাজ্য। পরে ইকুয়েডরের প্রেসিডেন্ট লেনিন মোরেনো জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জের কূটনৈতিক আশ্রয় প্রত্যাহারের পর চলতি বছরের ১১ এপ্রিল তাকে গ্রেফতার করে লন্ডন মেট্রোপলিটন পুলিশ। ২০১২ সালে জামিনের শর্ত ভঙ্গ করায় ১ মে তাকে ৫০ সপ্তাহের কারাদণ্ড দেন ব্রিটেনের আদালত। যুক্তরাষ্ট্রের হাতে ফিরিয়ে দেয়া হলে কম্পিউটার হ্যাকিংয়ের দায়ে অ্যাসাঞ্জের ১৭৫ বছর কারাদণ্ড হতে পারে।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Close