ব্রেক্সিটের পরামর্শ ফি ৯৭ মিলিয়ন ইউরো

ব্রেক্সিট প্রস্তুতির জন্য পরামর্শ ফি বাবদ ৯৭ মিলিয়ন (৯ কোটি ৭০ লাখ) ইউরো খরচ করেছে ব্রিটিশ সরকার। দেশটির জাতীয় অডিট দফতর (এনএও) এ তথ্য দিয়েছে। এনএও জানায়, বৈদেশিক বিশেষজ্ঞ ভাড়া করতে গিয়ে এ পরিমাণ অর্থ খরচ হয়েছে। কারণ যুক্তরাজ্যে এ ধরনের দক্ষ কর্মকর্তার অভাব রয়েছে। এনএও সরকারের স্বচ্ছতা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছে বলে জানিয়েছে বিবিসি। বলেছে, মন্ত্রিসভার প্রকাশিত ব্যয়ের চেয়ে ব্রেক্সিট ব্যয় আরও অনেক বেশি। মন্ত্রিসভার দফতরের হিসাব অনুসারে, ২০১৮ সালের এপ্রিল থেকে ২০১৯ সালেল এপ্রিল পর্যন্ত পরামর্শ সেবার জন্য ৬৫ মিলিয়ন ইউরো খরচ হয়েছে। কিন্তু এনএও’র তদন্ত বলছে, মন্ত্রিসভা আরও অন্তত ৩২ মিলিয়ন ইউরোর খরচ অগোচরে রেখেছে। আলোচনার পরিধি বাড়ানো হয়েছিল চলতি বছরের এপ্রিলে। সে সময় ইইউ ছাড়ার সময়সীমা ৩১ অক্টোবর নির্ধারিত হয়েছিল। এনএও বলছে, ব্রেক্সিট বাস্তবায়নে এখনও প্রস্তুতি চলছে এবং পরামর্শ বাবদ মোট ব্যয় আরও বাড়বে। সরকারের নির্দেশনা অনুসারে, ৯০ দিনের মধ্যে সব বিভাগের তথ্য প্রকাশের কথা বলা হয়েছে। কিন্তু এজন্য গড়ে ১১৯ দিন সময় নিয়েছে বলে জানিয়েছে এনএও। তারা আরও জানিয়েছে, ছয়টি কনসালটেন্সি ফার্ম (পরামর্শ প্রতিষ্ঠান) ব্রেক্সিট সম্পর্কিত কাজের ৯৬ শতাংশ গ্রহণ করেছে।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Close