এনএইচএস নিয়ে ঋষি সুনাকের জরুরি বৈঠক: কঠোর সমালোচনায় বিরোধী দল

প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাকের শনিবার এনএইচএস এবং কেয়ার নেতৃবৃন্দের সাথে জরুরি বৈঠক করার কথা। ইংল্যান্ডে শীতকালীন স্বাস্থ্যসেবা সংকট মোকাবেলার উদ্দেশ্যে আয়োজিত এই বৈঠক। এনএইচএস রিকোভারি ফোরাম ১০ নম্বরে আয়োজিত ঐ বৈঠকে যে সব বিষয় উপস্থাপন করার কথা সেগুলো হচ্ছে: সোশ্যাল কেয়ার ও বিলম্বিত ডিসচার্জ, জরুরি সেবা, ইলেকট্রিভ কেয়ার এবং প্রাথমিক সেবা।
মি: সুনাককে এই বলে হুঁশিয়ার করে দেয়া হয়েছে যে, বিরল সপ্তাহান্তের সভায় এনএইচএস এর ভাগ্য পরিবর্তনের তেমন কোনো সম্ভাবনা নেই। লেবার পার্টি বলেছে, রোগীরা টকিং শপ এর চেয়ে বেশি কিছু পাওয়ার যোগ্য। লিবারেল ডেমোক্রেটরা বলেছেন, এ উদ্যোগ যেমন ক্ষুদ্র তেমনি বিলম্বিত। সিনিয়র চিকিৎসকরা বলেন, এনএইচএস বিপর্যয়ের শেষ প্রান্তে উপনীত হয়েছে। এর অনেকগুলো এক্সিডেন্ট এন্ড ইমার্জেন্সি (এএন্ডই) ইউনিট ট্রাস্টসমূহ ও চাহিদার মধ্যে সামঞ্জস্য বিধানে হিমশিম খাচ্ছে। অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস গুরুতর পরিস্থিতি ঘোষণা করেছে। গত সপ্তাহে ইংল্যান্ডের ডিসচার্জ অর্থাৎ হাসপাতাল থেকে রোগী অবমুক্ত করণের হার হ্রাস পায়। প্রকৃতপক্ষে হাসপাতাল ছাড়তে প্রস্তুত রোগীদের মাত্র এক তৃতীয়াংশ হাসপাতাল ত্যাগ করেন। বৈঠকটি যখন অনুষ্ঠিত হচ্ছে তখন নার্সিং ও এম্বুলেন্স কর্মীরা মজুরি ও পরিস্থিতির উন্নতির দাবিতে ধর্মঘট করছে। এনএইচএস কনফেডারেশন এর প্রধান নির্বাহী মেথিউ টেইলার বলেন, সংকট দূরীকরণে কোন জাদুকাঠি নেই তাদের হাতে। এই সংকট একযুগ কিংবা তারও বেশি সময়ের এবং আমরা এখন বহু বছরের পদক্ষেপ হীনতা ও ক্ষয়িষ্ণু ব্যবস্থাপনার খেসারত দিচ্ছি। রোগীরা এখন এমন বিলম্বের সম্মুখীন হচ্ছে, যা বিগত বছরগুলোতে দেখা যায়নি। ডাউনিং স্ট্রিট এর জনৈক মুখপাত্র বলেন, প্রধানমন্ত্রী চলতি সপ্তাহে এটা স্পষ্ট করেছেন যে, আসন্ন চাপ হ্রাসের পাশাপাশি এনএইচএস এর দীর্ঘমেয়াদি উন্নয়ন হচ্ছে তার প্রধান প্রতিশ্রুতির একটি। তাই আমরা বিলম্বিত ডিসচার্জ ও জরুরি সেবার মত সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ চ্যালেঞ্জগুলো মোকাবেলার লক্ষ্যে জ্ঞান শেয়ার ও বাস্তব সমাধানের মধ্যে সমন্বয় সাধনের কাজটি করছি।
ছায়া স্বাস্থ্যমন্ত্রী উয়েস স্ট্রিটিং বৈঠককে ‘টকিং শপ’ অর্থাৎ গল্পগুজব এর দোকান’ আখ্যায়িত করে বলেন, এনএইচএস এর ১৩ বছরের অব্যবস্থাপনার পর অগ্নিকাণ্ড সংঘটনকারী কর্তৃক আগুন নেভানোর জন্য ফায়ার ব্রিগেডকে আহ্বান জানানোর শামিল।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button