আত্নজীবনীর বর্ননা

ভাইয়ের বিরুদ্ধে প্রিন্স হ্যারির দৈহিক আক্রমনের অভিযোগ

প্রিন্স হ্যারি দাবি করেছেন যে, তার ভাই উইলিয়াম তাকে দৈহিক হামলা করেছিলেন। আর এটা তিনি লিখেছিলেন তার আত্মজীবনীতে। ‘স্পেয়ার’ নামের এই আত্মজৈবনিক বইয়ে প্রিন্স হ্যারির স্ত্রী মেগানকে কেন্দ্র করে একটি তর্কবিতর্কের বিষয়ও তুলে ধরা হয়েছে এই বইয়ে। গার্ডিয়ান পত্রিকা এই বইয়ের একটি কপি দেখেছে বলে উল্লেখ করেছে।
হ্যারির উদ্ধৃতি দিয়ে গার্ডিয়ান লিখেছে, তিনি আমার কলার চেপে ধরেন, আমার গলার হার ছিঁড়ে ফেলেন এবং আমাকে ধাক্কা দিয়ে মেঝেতে ফেলে দেন। কেনসিংটন প্রসাদ ও বাকিংহ্যাম প্রাসাদ উভয় প্রাসাদই বলেছে, তারা এ ব্যাপারে কোন মন্তব্য করবে না। প্রসাদদ্বয়, যেগুলো যথাক্রমে প্রিন্স উইলিয়াম ও রাজার প্রতিনিধিত্ব করেন, সেই প্রাসাদসমূহ এই কৌশল গ্রহন করেছে বলে মনে হচ্ছে যে, জবাব ছাড়াই যে কোন দাবি দ্রুত বিলীন হয়ে যাক। ইতোমধ্যে এক সাক্ষাতকারে প্রিন্স হ্যারি জানিয়েছেন যে, তিনি মে মাসে রাজার অভিষেকে যোগ দেবেন না। তিনি বলেন, অনেক কিছুই যখন- তখন ঘটতে পারে এবং বল এখন (রাজার পরিবারের) কোর্টে।
প্রিন্স হ্যারির আত্মজীবনী আগামী মঙ্গলবারের পূর্বে প্রকাশিত হবে না। তবে গার্ডিয়ান বলেছে, তারা কথিত কঠোর প্রকাশপূর্ব নিরাপত্তার মধ্যে বইটির একটি কপি সংগ্রহ করেছে। গার্ডিয়ান অনুসারে, বইটিতে ২০১৯ সালে তার লন্ডনের বাড়িতে প্রিন্স হ্যারিকে লক্ষ্য করে প্রিন্স উইলিয়ামের ছোঁড়া মন্তব্যগুলো বিরোধকে উস্কে দিয়েছে। পত্রিকাটি বলেছে, প্রিন্স হ্যারি লিখেছেন যে, তার ভাই মেগানকে জটিল, কর্কশ ও জ্বালাতনকারী হিসেবে বর্ননা করেন।
বইয়ে ডিউক অব সাসেক্স লিখেছেন, বিরোধ বিস্তৃত হওয়ায় তার ভাই সংবাদ সম্মেলনের বক্তব্যের মতো তোতার বুলি আউড়াচ্ছিলেন। পরে কথিত দৈহিক আক্রমনসহ যা ঘটে, তা বর্ননা করেন প্রিন্স হ্যারি বইটিতে।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button