ইসলামিক চ্যারিটির প্রথম অমুসলিম সিইও নিয়োগ দিল পেনি অ্যাপিল

পেনি অ্যাপিল-এর ‘বোর্ড অব ট্রাস্টিজ’ এই প্রথমবারের মতো একজন অমুসলিম ব্যক্তিকে প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বা সিইও হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে। এই অমুসলিম ব্যক্তির নাম অ্যালেক্স লেইথ। যুক্তরাজ্যের একটি ইসলামিক চ্যারিটির প্রথম অমুসলিম সিইও নিযুক্ত হয়েছেন তিনি। লেইথের টেক, ডিজিটাল মার্কেটিং ও ফাইন্যান্সে কাজের অভিজ্ঞতা রয়েছে। পেনি অ্যাপিল বলেছে, এই নিযুক্তি বৈচিত্র্যময়তা ও মিশ্র সাংস্কৃতিক সহযোগিতার সমর্থনে তাদের প্রতিশ্রুতির প্রকাশ।
অ্যালেক্স লেইথ বলেন, ২০০৯ সালে প্রতিষ্ঠার পর থেকে পেনি অ্যাপিল দারিদ্র্যের চক্র থেকে প্রজন্মের জনগণকে তুলে আনার মাধ্যমে একটি প্রকৃত উল্লেখযোগ্য মানবতাবাদী উত্তরাধিকার প্রতিষ্ঠা করেছে। যাদের প্রয়োজন রয়েছে এমন লোকজনের জন্য আরো বেশী কিছু করার ক্ষেত্রে সংস্থাটির পরিশ্রম ও সার্বক্ষণিক প্রচেষ্টার ক্ষেত্রে নেতৃত্বের তাগিদ আমাকে অনুপ্রাণিত করেছে। আমি শ্রম দান, কাজ থেকে শিক্ষাগ্রহণ ও আমার সব কিছুকে এ উদ্দেশ্য কাজে লাগাতে আমি প্রস্তুত।
মুসলিম নেতৃত্বাধীন একটি দাতব্য সংস্থায় যোগদান প্রসঙ্গে তিনি বলেন, একটি টিক বক্স অনুশীলনের চেয়ে বৈচিত্র্যময়তা অধিক কার্যকর। আমি দাতব্য খাতে সবচেয়ে বৈচিত্র্যপূর্ণ বোর্ডসমূহ ও কর্মী বাহিনীর একজন হতে পেরে গর্বিত। আমরা সম্মিলিতভাবে সর্বোত্তম ব্রিটেনের প্রতিনিধিত্ব করি।
ওয়েকফিল্ড ভিত্তিক চ্যারিটির ট্রাস্টি বোর্ডের সভাপতি মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর বলেন, আমরা অ্যালেক্সকে আমাদের নতুন সিইও হিসেবে পেয়ে উদ্বুদ্ধ। তিনি তার পদে অবিশ্বাস্য দক্ষতার নিয়ে এসেছেন।
উল্লেখ্য, পেনি অ্যাপিল ইসলামিক রিলিফ এবং মুসলিম এইড-এর পরেই ব্রিটেনের সর্ববৃহৎ মুসলিম চ্যারিটি বা দাতব্য সংস্থায় পরিণত হয়েছে। গত কয়েক দশকে আয়ের দিক থেকে এটা বর্তমান পর্যায়ে এসে উপনীত হয়েছে।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...
Close
Back to top button