২০২৩ সালে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিতে লেবার নেতার নির্দেশ

লেবার নেতার কেইর স্টার্মার তার দলকে ২০২৩ সালের মে মাসে একটি আগাম সাধারন নির্বাচন মোকাবেলার জন্য প্রস্তুত থাকার নির্দেশ প্রদান করেছেন। এসময় তিনি মাস্ক খুলে ফেলার এবং তিনি কেনো আগামী প্রধানমন্ত্রী তা ব্রিটিশ জনগনকে প্রদর্শনের প্রতিশ্রুতি প্রদান করেন।
নেতা হিসেবে এক বছর পর দলের অনেকের উদ্বেগ এই যে, তিনি এখনো স্পষ্টভাবে তার ব্যক্তিগত ভিশন বা দৃষ্টিভঙ্গী উপস্থাপন করেননি যাকে কেন্দ্র করে এমপি ও কর্মীরা আবর্তিত হবেন।
স্টার্মার বলেন যে, তিনি ভোটারদের সাথে সাক্ষাত করতে এবং দেশে প্রচারাভিযান চালাতে সক্ষম না হওয়ায় অত্যন্ত হতাশ। তিনি বলেন, আমরা লেবার পার্টিকে পুনর্গঠন করছি এবং এটা প্রদর্শন করছি যে, আমরা নতুন নেতৃত্বের অধীনে রয়েছি। কিন্তু এটা হতাশব্যঞ্জক যে, একজন নেতা হিসেবে দর্শক-শ্রোতাদের উপস্থিতিতে একটি সভায় বক্তব্য রাখতে কিংবা একজন ভোটারের সাথে হাত মেলাতে পারিনি।
তিনি আরো বলেন যে, তিনি এখনো অর্থনৈতিক অসমতার শেকড় উৎপাটন, জনগনের সেবার লক্ষ্য পুনঃব্যাখ্যাকরন এবং দেশব্যাপী নিরাপদ ও উচ্চ দক্ষতার চাকুরী সৃষ্টির নতুন এজেন্ডা নিয়ে বরিস জনসনের সাথে লড়াইয়ে অবতীর্ন হতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ। তিনি এটা করবেন এই প্রত্যাশা নিয়ে যাতে বরিস জনসন আগেভাগেই বিদায় নেন এবং ২ বছরের মধ্যে একটি নির্বাচন ত্বরান্বিত হয়।
কেইর স্টার্মার আরো বলেন, আমি এখন মাস্ক খুলে ফেলার এবং থ্রটল ওপেন করার অপেক্ষায় আছি। আমি দলকে ২০২৩ সালে নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত থাকার নির্দেশ দিয়েছি। আগামী নির্বাচন ব্রিটেনের জনগনকে কাজ করার একটি সুযোগ করে দেবে তাদের জীবনে। বাজেটের দায়িত্বে নিয়োজিত অফিস ইতোমধ্যে এই মর্মে পূর্বাভাস দিয়েছে, এবছর অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি হবে ৪ শতাংশ, ২০২২ সালে তা ৭.৩ শতাংশ বৃদ্ধির সম্ভাবনা আছে। তবে আগামী বছর তা হ্রাস পেয়ে যথাক্রমে ১.৭, ১.৬ এবং ১.৭ শতাংশে দাঁড়াতে পারে।
লেবার নেতা বলেন, তিনি অর্থনীতির সম্পূর্ন লক্ষ্য বা উদ্দেশ্য পরিবর্তন করতে চান, যাতে শুধু স্বল্প মেয়াদী শেয়ার হোল্ডার লাভবান না হয়ে দীর্ঘমেয়াদী শেয়ারড্ সিকিউরিটি, ন্যায় বিচার এবং অর্থনৈতিক ও সামাজিক সমৃদ্ধির নিষয়টি স্থান পায় সিদ্ধান্ত গ্রহনের কেন্দ্রবিন্দুতে।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Back to top button
Close