হাজারো কর্মী ছাঁটাইয়ের শঙ্কায়

যুক্তরাজ্যে সব স্টোর বন্ধের কথা ভাবছে গ্যাপ

যুক্তরাজ্যে সব স্টোর বন্ধের কথা ভাবছে মার্কিন রিটেইলার গ্যাপ। এতে হাজারো কর্মী ছাঁটাইয়ের শঙ্কায় রয়েছেন। এক বিবৃতিতে গ্যাপ জানায়, আগামী গ্রীষ্মের মধ্যে যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, আয়ারল্যান্ড ও ইতালির সব স্টোর বন্ধের কথা ভাবছে তারা। রাগবিতে অবস্থিত ইউরোপীয় বিতরণ কেন্দ্রটিও বন্ধের কথা ভাবছে গ্যাপ। সাম্প্রতিক বছরগুলোয় বিক্রিতে পতনের কথা জানাচ্ছে রিটেইলারটি। নভেল করোনাভাইরাস মহামারীর কারণে মে প্রান্তিকে ৭৪ কোটি পাউন্ড লোকসান গুনেছে গ্যাপ।
জুলাই শেষে ইউরোপজুড়ে গ্যাপের ১২৯টি স্টোর সচল ছিল। কভিড-১৯ মহামারীর কারণে বিশ্বজুড়েই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে পোশাক ব্র্যান্ডগুলো। লকডাউনের কারণে সাময়িকভাবে বন্ধ রাখার পাশাপাশি অনেক রিটেইল স্টোর স্থায়ীভাবে বন্ধ হয়ে গেছে। এছাড়া লকডাউন শেষে ধীরে ধীরে ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান চালু হলেও ক্রেতা উপস্থিতি ছিল লক্ষণীয়ভাবে কম। মহামারীর কারণে গ্রাহকদের অনলাইনে কেনাকাটার অভ্যাস বৃদ্ধিও এক্ষেত্রে ভূমিকা রেখেছে।
সেন্টার ফর রিটেইল রিসার্চ বলছে, মহামারীর মধ্যে টিকে থাকতে হিমশিম খাচ্ছে অনেক রিটেইলার। এমনকি মহামারী শুরুর আগে থেকেই ক্রেতা আকর্ষণ ধরে রাখতে হিমশিম খাচ্ছিল গ্যাপ। একসময় তরুণদের কাছে জনপ্রিয় থাকলেও জারা, এইচঅ্যান্ডএম ও ফরএভার টুয়েন্টি ওয়ানের মতো সাশ্রয়ী ব্র্যান্ডের সঙ্গে পাল্লা দিতে পারছিল না গ্যাপ।
চলতি বছরের শুরুতেই গ্যাপ জানিয়েছিল, বিশ্বজুড়ে পুনর্গঠনমূলক কর্মসূচির আওতায় গ্যাপ ও ব্যানানা রিপাবলিকের ২২৫টি অলাভজনক স্টোর বন্ধের পরিকল্পনা করছে তারা।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Back to top button
Close