ওয়েলসে শুক্রবার থেকে লকডাউন ঘোষণা

শুক্রবার থেকে লকডাউন ঘোষণা করলো যুক্তরাজ্যের ওয়েলস। ২ সপ্তাহ থাকবে এই লকডাউন। শুধুমাত্র জরুরি পেশাজীবি বাদে সকলকে ঘরে থাকতে হবে। বন্ধ রাখতে হবে বার, পাব, রেস্টুরেন্টসহ সব ধরণের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান। ওয়েলস কর্তৃপক্ষ বলছে, ন্যাশনাল হেলথ সার্ভিসকে রক্ষা করতেই তাদের কঠিন সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে হলো।
যুক্তরাজ্যের ওয়েলস এ দ্রুতই বাড়ছে করোনাভাইরাস সংক্রমণ। শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টায় কার্যকর হবে নতুন নিয়ম। এ সময়ের মধ্যে প্রত্যেককে বাজার করে ফেলতে বলা হয়েছে। ওয়েলস এর ফার্স্ট মিনিস্টার মার্ক ড্রেকফোর্ড এই ঘটনাকে অগ্নিনিয়ন্ত্রণের সঙ্গে তুলনা করেছেন। তিনি জানান, ২ সপ্তাহ কড়াকড়িভাবে সকলকে ঘরে থাকতে হবে। শুধু পুলিশ, চিকিৎসাকর্মী, গণমাধ্যমকর্মী, পরিচ্ছন্নতাকর্মীরা বাইরে যাবার অনুমোদন পাবেন। এমনকি ঘরের ভেতরেও কোনও ধরণের মেলামেশা করা যাবে না প্রতিবেশি বা আত্মীয়স্বজনদের মধ্যেও। এমন সময় ওয়েলস এই সিদ্ধান্ত নিলো যখন ইংল্যান্ড এর উত্তরাঞ্চলের শহরগুলোর সঙ্গে লকডাউন নিয়ে লন্ডনের দ্বন্দ্ব চরমে পৌঁছে গেছে। ম্যানচেস্টারের মেয়র আবারও বলেছেন, লকডাউন দেয়া হলে তিনি লন্ডনের সিদ্ধান্ত মানবেন না। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, কার্ডিফকে উদাহরণ হিসেবে ব্যবহার করে লন্ডন যুক্তরাজ্যব্যাপি আরেকটি লকডাউন দেবার চেষ্টা করতে পারে ।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Back to top button
Close