পরিকল্পনায় দুর্বলতা

ব্রিটিশ করদাতাদের বিলিয়ন পাউন্ড হাতিয়ে নিয়েছে প্রতারকরা

ব্রিটিশ এমপি’রা অভিযোগ করেছেন, মহামারির ফলে অর্থনৈতিক পতনের ক্ষেত্রে বিস্ময়করভাবে পরিকল্পনার ঘাটতি লক্ষ্য করা গেছে। এর ফলে করদাতাদের বিলিয়ন বিলিয়ন পাউন্ড চলে গেছে প্রতারকদের পকেটে। কমন্স পাবলিক একাউন্টস কমিটি বলেছে, তাড়াহুড়ো করে প্রস্তুত লোন স্কীম এবং চাকুরী সহায়তা সংক্রান্ত পদক্ষেপসমূহ এর দুর্বলতা কাজে লাগানোর সুযোগ করে দিয়েছে প্রতারকদের। সরকারের অধিকতর প্রস্তুতি না থাকায় ত্রুটির হার বেড়েছে।
এতে আরো বলা হয়েছে, এইচএমআরসি’কে কর সংগ্রহের স্বাভাবিক ভূমিকা থেকে সরিয়ে করোনাভাইরাস সংশ্লিষ্ট কাজে সম্পৃক্ত করা হয়েছে। যার অর্থ, স্বাভাবিক সময়ে যে পরিমাণ কর ফাঁকি দেয়া হতো তার চেয়ে বিলিয়ন পাউন্ড বেশী অর্থ ফাঁকি দেয়া হয়েছে।
এইচএমআরসি-এর পরিসংখ্যান অনুসারে আগষ্টের মাঝামাঝি পর্যন্ত সরকার প্রতারণামূলক কিংবা ত্রুটিপূর্ণ ফারলো স্কীম দাবিসমূহের ৩.৫ বিলিয়ন পাউন্ড পরিশোধ করেছে। গত সপ্তাহে ন্যাশনাল অডিট অফিস (এনএও) সরকারী পরিসংখ্যান উদ্ধৃত করে বলেছে, বাউন্স ব্যাক লোন স্কীম-এর অধীনে ক্ষুদ্র ব্যবসাগুলোকে ২৬ বিলিয়ন পাউন্ড ঋণ দিয়েছে, যা হয়তো আর ফেরত পাবে না। এই অর্থের একটি বড়ো অংশ প্রতারণামূলকভাবে নেয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Back to top button
Close