করোনাভাইরাসে পৃথিবীতে প্রথম বধির ব্রিটেনে

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ হলে বিভিন্ন উপসর্গ দেখা দেয়। জ্বর, সর্দি-কাশি, ডায়রিয়া, গলা ব্যথা, খাবার অনীহা, স্বাদ-গন্ধ না পাওয়া। কিন্তু করোনা সংক্রমণ শুরুর পর থেকে বধির হয়ে যাওয়া। নাহ এমন খবর পাওয়া যায়নি। তবে এবার পৃথিবীতে এমন নজির এই প্রথম ধরা পড়েছে।
ব্রিটেনে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর এক ব্যক্তি চিরতরে বধির হয়ে গেছেন। তিনি যতদিন বেঁচে থাকবেন কানে শুনতে পারবেন না। আর ওই ব্যক্তিকে পরীক্ষা-নিরীক্ষার এই তথ্য জানিয়েছেন ব্রিটেনের চিকিৎসকেরা। চিকিৎসকদের কথায়, করোনা থেকে সেরে ওঠলেও ওই ব্যক্তি চিরতরে তার শ্রবণশক্তি হারিয়ে ফেলেছেন।
শ্রবণশক্তি হারানো ব্রিটিশ ব্যক্তির বয়স ৪৫ বছর। তার কানে না শোনার ক্ষমতা হারানোর পর ম্যানচেস্টার ইউনিভার্সিটির বিশেষজ্ঞরা সতর্ক করে বলেছেন, কিছু ব্যক্তির ক্ষেত্রে এমনটি হতে পারে। এনআইএইচআর-এর অর্থায়নে পরিচালিত একটি গবেষণায় এর আগে ১২১ জন করোনা রোগীর ডেটা পর্যবেক্ষণ করেন বিশেষজ্ঞরা।
হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাওয়ার ৮ সপ্তাহ পর ফোনের মাধ্যমে তাদের সাক্ষাৎকার নেয়া হয়। কানে কম শুনতে পাচ্ছেন কি না, এমন প্রশ্নের জাবে ১৩.২ শতাংশ মানুষ জানান আগের থেকে অবস্থা খারাপ। এর মধ্যে আবার আটজনের কানে ভোঁ-ভোঁ শব্দ হয়েছে। বাইরের কোনো আওয়াজ ছাড়াই তাদের এমন অনুভ‚তি হয়।
এখন যে ব্যক্তি এক কানে শ্রবণক্ষমতা পুরোপুরি হারিয়েছেন তার অ্যাজমা ছিল। উপসর্গের ১০ দিন পর তাকে টিকিৎসকরা অইসিইউতে নিয়ে যান। এরপর ৩০ দিন থাকতে হয় ভেন্টিলেশনে। সেখান থেকে ছাড়া পাওয়ার সপ্তাহ খানেক পর বাম কানে শোনার ক্ষমতা হারিয়ে ফেলেন। করোনায় আক্রান্ত লোকটির অ্যাজমা থাকলেও তিনি সুস্থ ও সবল ছিলেন।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Back to top button
Close