অনলাইনে খাদ্য কেনায় ওকাডো’র আয় বেড়েছে শতকরা ২৭ ভাগ

সম্প্রতি ওকাডো ঘোষণা করেছে যে, অনলাইনে তাদের গ্রোসারি সামগ্রীর বিক্রি যুক্তরাজ্যে অভূতপূর্বভাবে বেড়েছে, যা গত ৬ মাসে ২৭ শতাংশ বৃদ্ধি। চীফ এক্সিকিউটিভ ও প্রতিষ্ঠাতা টিম স্টেইনার বলেন, আমাদের পরিচিত বিশ্ব বদলে গেছে। কভিড-১৯ এর কারনে আমরা মাত্র কয়েক মাসে অনলাইন গ্রেসারি মার্কেটে বিক্রয় বৃদ্ধি লক্ষ্য করছি এবং আমরা এটা থেকে ফিরে যাবো না। তিনি বলেন, ওকাডোর অনলাইন সরবরাহ প্রযুক্তি ব্যবহারকারী আন্তর্জাতিক গ্রোসারদের ইনভয়েসকৃত ফী ৫৮ ভাগ বৃদ্ধি পেয়েছে, যা ৭৩.৭ মিলিয়ন পাউন্ডে গিয়ে দাঁড়িয়েছে। প্যারিস ও টরোন্টো সহ নতুন বিদেশী সাইট গুলো এতে যুক্ত হয়েছে।

ওকাডো জানায়, ব্যালান্স শীটে তাদের ২.৩ বিলিয়ন পাউন্ড ক্যাশ রয়েছে, সম্প্রতি পুঁজি বাজারে তা ১ বিলিয়ন পাউন্ডে বৃদ্ধির পর। স্টেইনার বলেন, আমাদের আত্মবিশ্বাস রয়েছে অনলাইনে চ্যানেলে এই ত্বরান্বিত প্রবৃদ্ধির ধারা অব্যাহত থাকবে, যা গ্রোসারি ইন্ডাস্ট্রির দৃশ্যপটে একটি স্থায়ী পরিবর্তনের সূচনা করবে।
গত কয়েক মাসে যুক্তরাজ্যে গ্রোসরি মার্কেটের অনলাইন প্রবেশ দ্বিগুন হয়েছে, যখন যুক্তরাষ্ট্রে আগষ্ট মাসের তুলনায় তাদের অনলাইন গ্রোসারি বিক্রয় ৬ গুন বৃদ্ধি পায়। স্টেইনার আরো বলেন, আমাদের বিশ্বাস এই চ্যানেল টেকসই। কারন যারা মহামারির সময় অনলাইনে এসেছেন, তারা এটা লকডাউন পরবর্তী সময়ে অব্যাহত রেখেছেন। এদের মধ্যে ৫৬ শতাংশই চীনা। যুক্তরাজ্যে ৩০ শতাংশ বলেন, তারা অনলাইনে অধিক হারে অর্ডার দেবেন এবং যুক্তরাষ্ট্রে ৯০ শতাংশ একই মন্তব্য করেন। গত ৬ মাসে মহামারি সত্বেও ওকাডো বিদেশে তার ফুলফিলমেন্ট সেন্টার খুলে-ফ্রান্সে ‘ক্যাসিনো’ এবং কানাডায় ‘সোবিজ’। তখন যুক্তরাজ্যে ক্যাপাসিটি বৃদ্ধি পাচ্ছিলো দ্রুত গতিতে।
এ অবস্থায় খুচরো বিকিকিনির ভবিষ্যত সম্পর্কে তেমন কিছু বলা কঠিন। স্টেইনারের সাবেক গোল্ডম্যান স্যাক্স সংখ্যার প্রশংসা করেন এবং বলেন ২৬ ফেব্রুয়ারী থেকে ৭৮ শতাংশ জোরালো বৃদ্ধি সত্বেও শেয়ারসমূহ সম্ভবত বৃদ্ধি পাবে। ওকাডো আগামী সেপ্টেম্বর মাসে ‘মার্কস এন্ড স্পেন্সার’- এর জন্য গ্রোসারি সরবরাহের লক্ষ্যে একটি যৌথ ব্যবসায়িক উদ্যোগ গ্রহনের চুক্তি করেছে।
গ্রুপটি জানায়, প্রক্রিয়াাটি চলমান। নুমিস ব্রোকার বলেন, আমরা ওকাডোর ইকুটি কাহিনী সম্পর্কে উৎসাহিত এবং তাদের ইমিটডা ভিত্তিক পূর্ণ বছরের ২০ মিলিয়ন পাউন্ড মুনাফার পূর্বাভাসের বিষয়টির রাশ কিছুটা টেনে ধরছি।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Back to top button
Close