লন্ডনে বাড়িভাড়া ১৫ শতাংশ পর্যন্ত হ্রাসে বাধ্য হচ্ছেন বাড়ির মালিকেরা

করোনভাইরাস লকডাউনের ফলে মার্কেটে বিপুল সংখ্যক বাড়ি খালি পড়ে থাকার প্রেক্ষাপটে লন্ডনের বাড়ির মালিকেরা বাড়িভাড়া ১৫ শতাংশ পর্যন্ত হ্রাস করতে বাধ্য হয়েছেন। একটি শীর্ষস্হানীয় বাড়িভাড়া প্রতিষ্ঠান সম্প্রতি এ তথ্য প্রকাশ করেছে। খুব কম সংখ্যক বিদেশী শিক্ষার্থী বাড়িঘর খোঁজার কারণে, কর্পোরেট স্হানান্তরের সংখ্যা কমে যাওয়ার দরুন এবং ভাড়াটেদের মধ্যে চাকুরী নিয়ে অনিশ্চয়তা সৃষ্টি ও পরিবারের কাছে বাড়িতে ফিরে যাওয়ার ফলে বাড়ির চাহিদা হ্রাস পেয়েছে বলে জানিয়েছে চেস্টারটনস।
চেস্টারটনস-এর ভাড়া বিষয়ক প্রধান রিচার্ড ডেভিস বলেন,আমরা এখন লন্ডনে রেন্টালের জন্য বছরের সবচেয়ে ব্যস্ত সময় চলে এসেছি, যখন ভাড়া সাধারণত: সর্বোচ্চ পর্যায়ে থাকে। তবে আমরা মার্কেটকে বাড়ির মালিকদের মার্কেট থেকে ভাড়াটেদের মার্কেটে দ্রুত পরিবর্তিত হতে দেখেছি এবং বাড়ির মালিকরা এখন বাড়াটে যোগাড় করতে বাড়ি বাড়া ১০ থেকে ১৫ শতাংশ হ্রাস করতে বাধ্য হচ্ছেন কিংবা দীর্ঘ সময়ের জন্য বাড়িভাড়া থেকে আয় হারানোর ঝুঁকির সম্মুখীন হচ্ছেন।
চেস্টারটনস-এর পরিসংখ্যানে দেখা যায়, গত বছরের এ সময়ের তুলনায় এ বছর লন্ডনে ভাড়াটে বাড়ির প্রায় ৬৩ শতাংশ বেশী পাওয়া যাচ্ছে।
মিঃ ডেভিস বলেন, মার্কেট এখনো ‘অবিশ্বাস্যভাবে ব্যস্ত’, তবে তা যেনো একটি ‘আরমাগেড্ডন পরিস্হিতি’থেকে অনেক দূরে। অবশ্য ভাড়াটেরা সাধারণভাবে একটি অধিকতর ভালো চুক্তি করতে সক্ষম হচ্ছেন এবং ল্যান্ডলর্ড অর্থাৎ বাড়ির মালিকেরাও সেই অনুসারে তাদের বাড়ি বা সম্পত্তির ভাড়া হ্রাস করেছেন।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Back to top button
Close