কয়েকশ’ ইইউ নাগরিককে বলা হয়েছে, যুক্তরাজ্যে তাদের থাকার অধিকার নেই

বেক্সিট পরবর্তী ইমিগ্রেশন স্ট্যাটাসের জন্য আবেদনকারী ইউরোপীয় ইউনিয়নের কয়েকশ’ নাগরিককে বলা হয়েছে যে, তাদের যুক্তরাজ্যে থাকার কোন অধিকার নেই। সম্প্রতি প্রকাশিত সরকারের ইইউ সেটেলমেন্ট স্কীম সংক্রান্ত সর্বশেষ পরিসংখ্যানে দেখা গেছে, ৩শ’ লোকের সেটেলড্ স্ট্যাটাস অর্থ্যাৎ বসতি মর্যাদা প্রত্যাখ্যান করা হয়েছে। ২০২১ সালের জুনের শেষ সময়সীমা পেরোনোর পর এসব ব্যাক্তির ব্রিটেনে থাকার অধিকার থাকবে না। যদি না সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে তারা সফলভাবে আপীল করেন। সংখ্যা আনুপাতিকহারে ক্ষুদ্র রয়েছে। কারণ সামগ্রীকভাবে প্রায় ৩০ লাখ আবেদনপত্র প্রোসেস করা হয়।

কিন্তু মাত্র ৭ জন লোককে প্রত্যাখানের পর গত মাসে এ সংখ্যা উল্লেখযোগ্য হারে বেড়ে যায়। এদিক দিয়ে সবকটি প্রত্যাখ্যান অপরাধের কারণে। কিন্তু সর্বশেষ প্রত্যাখ্যানের অধিকাংশই বলা যায় অযোগ্যতার কারণেই- কারণ আবেদনকারীরা সংশ্লিষ্ট দালালিক প্রমাণ দাখিলে ব্যর্থ হয়েছেন, যখন সংখ্যা আনুপাতিকহারে স্বল্প, প্রচারিভিযানকারীরা আকস্মিক বৃদ্ধিতে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন এবং এতে সম্ভবত: অরক্ষিত লোকজনের প্রমাণ যোগাড়ের ব্যাপারে সমস্যার বিষয়ে উদ্বেগ বৃদ্ধি পেয়েছে।
হোম অফিস বলেছে, আবেদনপত্রগুলো প্রত্যাখ্যানের আগে কর্মকর্তারা প্রয়োজনীয় প্রমাণ লাভের জন্য সম্ভব সকল প্রচেষ্টা চালান এবং প্রত্যাখ্যানের সিদ্ধান্ত সমূহকে হালকাভাবে গ্রহণ করা হয়নি এবং উচ্চ পর্যায়ে তা অনুমোদিত।
থ্রিমিলিয়ন ক্যাম্পেইন গ্রুপের সহ-প্রতিষ্ঠাতা বলেন যে, ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারীর পূর্বে অযোগ্যতার যুক্তিতে কোন প্রত্যাখ্যানের ঘটনা ঘটেনি অথচ এখন দ্রুত বেড়েছে এটা তার উদ্বেগের কারণ।
তিনি বলেন, এটা ব্যাখ্যা করা কঠিন। আমরা জরুরি ভিত্তিতে হোম অফিসের অধিকতর ব্যাখ্যা দাবি করি।
এটা উদ্বেগের বিষয় যে, যুক্তরাজ্যের ইইউ ত্যাগের সাথে আমরা দেখতে পাবো লোকজন সেটেলড স্ট্যাটাস হারাচ্ছে।
সেরাফাস ল’ফার্মের অভিবাসন সলিসিটর ক্রিস্টোফার দেখিরা বলেন, সম্ভবত: অপরাধের যুক্তির বাইরে অধিক সংখ্যক প্রত্যাখ্যানের ঘটনা বিদ্যমান, যা অপ্রচলিত পারিবারিক ব্যবস্হাপনায় বিপুল সংখ্যককে উদ্বিগ্ন করতে পারে।এটা সবচেয়ে জটিল প্রয়োগের প্রবণতায় পর্যবসিত হতে পারে।
তিনি করোনাভাইরাস বিস্তারের দরুন ফ্রী আউটরীচ ও পরামর্শ সেবার মধ্যে ফারাক সৃষ্টির ব্যাপারে উদ্বেগের কথা উল্লেখ করেন, যা হোম অফিস থেকে অধিকতর তথ্যের অনুরোধলাভ কারীদের জন্য সমস্যা সৃষ্টি করতে পারে।
অথচ জরুরি অবস্হা অতিবাহিত না হওয়া পর্যন্ত কীভাবে উত্তর দেবে এবং হোম অফিসে সাক্ষাত করবে, তারা তা জানেনা।
লিবারেল ডেমোক্রেটের স্বরাষ্ট্র বিষয়ক মুখপাত্র ক্রিস্টিন জার্ডিন গত মাসে তার উপস্থাপিত প্রাইভেট মেম্বার্সেজ বিল সমর্থনের জন্য তিনি সরকারের প্রতি আহবান জানান, যা যুক্তরাজ্যে ইইউ নাগরিকদের অধিকারসমূহের নিশ্চয়তা দেবে।
তিনি আরো বলেন, ইইউ নাগরিকেরা দীর্ঘদিন যাবৎ ঘোর অনিশ্চয়তার মধ্যে বসবাস করছেন।
তারা আমাদের পরিবার,বন্ধুবান্ধব, আমাদের সহকর্মী এবং পরিচর্যাকারী। তাদের অবশ্যই থাকার অধিকার থাকতে হবে। এমনকি করোনাভাইরাস সংকটের আগে আমরা এই মর্মে হুঁশিয়ার করেছি যে, ১০ হাজার ইইউ নাগরিক সেটেলড্ স্ট্যাটাস ছাড়াই পরিত্যক্ত হবেন, যখন রক্ষণশীল সরকারের ডেডলাইন স্বেচ্ছাচারী শেষ সময়সীমা পরবর্তী বছরেকেও আঘাত করবে। এটা হাজার হাজার লোককে কার্যত: ডকুমেন্টবহীন অবস্হায় এবং উচ্ছেদ, আটক এমনকি নির্বাচনের ঝুঁকিতে ফেলে দেবে। এটা হবে এমনকি আরো বড়ো মাত্রার একটি নতুন উইন্ডরাশ কেলেংকারী।
হোম অফিসের পরিসংখ্যানে দেখা গেছে, ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারীর শেষ দিকে স্কীমটিতে সামগ্রীকভাবে ৩ দশমিক ৩৪ মিলিয়নেরও বেশি আবেদন রয়েছে।
ফিউচার বর্ডার এন্ড ইমিগ্রেশন বিষয়ক মন্ত্রী কেভিন ফস্টার বলেন,আমাদের দেশের ক্ষেত্রে ইইউ নাগরিকদের বিপুল অবদান রয়েছে। এটা ভালো খবর যে, ৩০ লাখের বেশী স্ট্যাটাস মন্জুর হচ্ছে এবং আগামী দশকসমূহ ব্যাপী যুক্তরাজ্যকে তাদের বাড়ি বলে আখ্যায়িত করতে সক্ষম হবে।
ডিপার্টমেন্ট জানায়, সেটেলড্ স্ট্যাটাসের জন্য আবেদনের ক্ষেত্রে ইইউ নাগরিকদের সহায়তা দানের জন্য তাদের একটি ব্যাপকভিত্তিক অনলাইন, ফোন ও ব্যক্তিগত সহায়তা ব্যবস্হা রয়েছে।
গত মাসের শুরুতে আবেদনের ব্যাপারে ইইউ নাগরিকদের সহায়তা প্রদানের জন্য ডিপার্টমেন্ট ৪৭টি দাতব্য সংস্হাকে আরো ৮ মিলিয়ন অর্থ প্রদানের ঘোষণা দেয়। গত এপ্রিলে একই কারণে সর্বোচ্চ ৯ মিলিয়ন পাউন্ডের ঘোষণা দেয়া হয়।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Back to top button
Close