আরব বিশ্বে আমিরাতই সর্বপ্রথম পরমাণু চুল্লি তৈরি করছে

আরব বিশ্বের মধ্যে সংযুক্ত আরব আমিরাতই সর্বপ্রথম পরমাণু চুল্লি তৈরি করার জন্য বিদেশি বিশেষজ্ঞদেরকে অনুমতি দিয়েছে। সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাজধানী আবুধাবির পশ্চিমে পারস্য উপসাগরের উপকূলে অবস্থিত বারাকাহ পরমাণু স্থাপনায় এই চুল্লি নির্মাণ করা হবে। আন্তর্জাতিক আণবিক শক্তি সংস্থায় (আইএইএ) নিযুক্ত সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রতিনিধি হামাদ আল-কাবি সোমবার এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানিয়েছেন।
তিনি বলেছেন, দেশটি চারটি পরমাণু চুল্লি নির্মাণ করবে। তবে প্রাথমিকভাবে একটির নির্মাণ কাজ শুরু হবে। গত মাসে আমিরাতের সরকারি কর্মকর্তারা জানিয়েছিলেন, ওই পরমাণু স্থাপনা আগামী কয়েক মাসের মধ্যে চালু হবে। পরমাণু স্থাপনা চালুর ব্যাপারে কোনও নির্দিষ্ট সময়সূচি উল্লেখ করেননি হামাদ আল-কাবি।
সংযুক্ত আরব আমিরাতের এ পরমাণু স্থাপনা নির্মাণ করছে দক্ষিণ কোরিয়ার একটি জ্বালানি করপোরেশন। পরমাণু স্থাপনাটি নির্মাণে ২ হাজার ৪৪০ কোটি ডলার খরচ হচ্ছে। সংযুক্ত আরব আমিরাত বলছে, চারটি পরমাণু চুল্লি চালু হলে ৫ হাজার ৬০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন করা সম্ভব হবে; যা দেশটির জাতীয় চাহিদার শতকরা ২৫ ভাগ।
জানা গেছে, সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাজধানী আবুধাবির পশ্চিমে পারস্য উপসাগরের উপকূলে অবস্থিত বারাকাহ পরমাণু স্থাপনায় এই চুল্লি নির্মাণ করা হবে। তবে নানা কারণে এবং নিরাপত্তার দিক বিবেচনা করে চুল্লি নির্মাণের কাজ শুরু করতে দেরি হয়েছে। দেশটির জাতীয় পরমাণু নিয়ন্ত্রক সংস্থা এখন চুল্লি নির্মাণের ব্যাপারে সবুজ সংকেত দিয়েছে।
এর আগে, জানুয়ারি মাসে সংযুক্ত আরব আমিরাতের কর্মকর্তারা জানিয়েছিলেন, ওই পরমাণু স্থাপনা আগামী কয়েক মাসের মধ্যে চালু হবে।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Back to top button
Close