চুক্তি ছাড়াই ব্রেক্সিট সম্পন্ন হতে পারে

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় ১০ নং ডাউনিং স্ট্রিটের একটি সূত্রের বরাতে দেশটির সংবাদমাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে যুক্তরাজ্যের বেরিয়ে আসা (ব্রেক্সিট) নিয়ে কোনো ধরনের চুক্তি আর কোনোভাবেই সম্ভব নয়।
প্রতিবেদন অনুযায়ী, পার্লামেন্টে তোপের মুখে থাকা ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন মঙ্গলবার ব্রেক্সিট চুক্তি নিয়ে জার্মান চ্যাঞ্চেলর অ্যাঙ্গেলা মেরকেলের সঙ্গে টেলিফোন সংলাপ করেন। সেই ফোনালাপের পর নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ডাউনিং স্ট্রিটের এক সূত্র বিবিসিকে এ তথ্য দেন।
ব্রেক্সিট চুক্তির প্রস্তাবনা নিয়ে জার্মান চ্যাঞ্চেলরের সঙ্গে কথা বলেন বরিস জনসন। বরিস ওই প্রস্তাবনা আগামী ১৭ অক্টোবর ইইউতে উত্থাপন করবেন। কিন্তু ডাউনিং স্ট্রিটের সূত্র বলছে, জার্মান নেতা মেরেকেলের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর আলোচনা ফলপ্রসূ না হওয়ায় চুক্তি অনেকটাই অসম্ভব।
রয়টার্স জানিয়েছে,ডাউনিং স্ট্রিটের আরেক কর্মকর্তা বলেছেন, ইইউ আপোষ করে খুব শিগগিরই একটি ব্রেক্সিট চুক্তি না করলে যুক্তরাজ্য চুক্তি ছাড়াই ব্রেক্সিট সম্পন্ন করবে। বিবিসির প্রতিবেদনে অ্যাডাম ফ্লেমিং বলেন, চুক্তির ব্যাপারে ইউরোপীয় ইউনিয়নের মধ্যে যে ‘সংশয়বাদের’ গুঞ্জন উঠেছে প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের সঙ্গে আলোচনায় অ্যাঙ্গেলা মেরকেল ঠিক তেমন শব্দগুচ্ছই ব্যবহার করেছেন।
মেরকেল বলেছেন, চুক্তি হতে হলে নর্দান আয়ারল্যান্ডকে ইইউ এর কাস্টমস ইউনিয়নে থাকতে হবে। কিন্ত জনসন তার প্রস্তাবে বলেছিলেন, যুক্তরাজ্যের বাদবাকী অংশের মতো নর্দান আয়ারল্যান্ডও ২০২১ সালের শুরুতে ইইউ-এর কাস্টমস ইউনিয়ন থেকে বেরিয়ে যাবে। এদিকে ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড টাস্ক বরিস জনসনকে উদ্দেশ্য করে স্পষ্ট ভাষায় করা একটি টুইটে যুক্তরাজ্যকে হুঁশিয়ার করে লিখেছেন, ‘আপনারা নির্বোধের মতো অন্যকে দোষারোপ করার এই খেলা বন্ধ করুন।’ তিনি ওই টুইটে বরিস জনসনকে উল্লেখ করে আরও লিখেছেন, ‘ইউরোপ ও যুক্তরাজ্যের ভবিষ্যতের সঙ্গে আমাদের নাগরিকদের নিরাপত্তা ও স্বার্থ এখন সঙ্কটাপন্ন। আপনি কী চুক্তি চান না, আপনি কি সময় পেছাতে চান না, আপনি এটা প্রত্যাহার করতে চান না? কোথায় যাচ্ছেন?’ খবরে বলা হয়, ব্রেক্সিট চুক্তির আশা মেরকেল ধুলিস্যাৎ করছেন বলেও ডাউনিং স্ট্রিট তাকে দোষারোপ করেছে। ইইউ এর শীর্ষ কর্মকর্তারাও এর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় যুক্তরাজ্যকে বোকার মত দোষাদুষির খেলায় না নামার ব্যাপারে সতর্ক করে দিয়েছেন।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Close