ফিলিস্তিন পুনর্গঠনে ৪৮০ মিলিয়ন ডলার দেবে কাতার

ইসরাইলি আগ্রাসনে ক্ষতিগ্রস্ত ফিলিস্তিনের পশ্চিমতীর ও গাজা উপত্যকার পুনর্গঠনে ৪৮০ মিলিয়ন ডলার দেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন কাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল-ছানি। কাতার এবং ফিলিস্তিনের মধ্যে ভ্রাতৃত্বপূর্ণ সম্পর্কের নিদর্শন হিসেবেই কাতারের আমির এ অর্থ দিয়েছেন বলে জানিয়েছে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। মঙ্গলবার সকালে এক বিবৃতিতে জানানো হয়, স্বাস্থ্য ও শিক্ষা কর্মসূচি বাস্তবায়নে পশ্চিম তীরের রামাল্লাভিত্তিক ফিলিস্তিন কর্তৃপক্ষকে ৩০০ মিলিয়ন ডলার দেয়া হবে। আর বাকি ১৮০ মিলিয়ন ডলার জাতিসংঘের জরুরি ত্রাণ ও বিদ্যুৎ কর্মসূচি বাস্তবায়নে ব্যয় করা হবে।

মধ্যপ্রাচ্যের অন্যতম তেলসমৃদ্ধ দেশ কাতার শুরু থেকেই ফিলিস্তিনে সহায়তা করছে। এ বছরের জানুয়ারিতে ৯৪ হাজার ফিলিস্তিনি পরিবারকে সহায়তা দেয় কাতার। গত মাসে গাজার বাসিন্দাদের জন্য অঙ্গ প্রতিস্থাপন ও পুনর্বাসন কেন্দ্রও চালু করেছে দেশটি। ২০১২ সালে কাতারের আমির হামাদ বিন খলিফা আল ছানি গাজা সফর করে সেখানে একটি হাসপাতাল করার প্রস্তাব দেন।

এদিকে গত শুক্রবার থেকে শুরু হওয়া লড়াইয়ে ২৯ ফিলিস্তিনি নিহত হওয়ার কথা জানিয়েছে ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ। দোহাভিত্তিক আল-জাজিরা টেলিভিশন জানিয়েছে, সোমবার মিসর ও কাতারের মধ্যস্থতায় ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ অস্ত্রবিরতিতে সম্মত হলেও ইসরাইলি কর্তৃপক্ষ এ ব্যাপারে নিশ্চিত কিছু জানায়নি। গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ইসরাইলি হামলার কারণে ১৪৬ ফিলিস্তিনি আহত হয়েছেন এবং গাজা উপত্যকার বিভিন্ন এলাকায় ১৫টি আবাসিক ভবন সম্পূর্ণ ধ্বংস হয়ে গিয়েছে।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Close