যাতায়াতে যাত্রীদের আর পাসপোর্টের প্রয়োজন পড়বে না

হিথ্রো বিমানবন্দরে চালু হচ্ছে ‘ফেসিয়াল রিকগনিশন’ প্রযুক্তি

বিশ্বের বিভিন্ন দেশের বিমানবন্দরে নেওয়া হচ্ছে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা। যাত্রীদের শনাক্ত করতে অতিরিক্ত কর্মী নিয়োগের পাশাপাশি নেওয়া হচ্ছে সর্বাধুনিক প্রযুক্তির সাহায্য। যাত্রীদের সুবিধা বিবেচনা করে এবার নতুন কৌশল নিতে যাচ্ছে ব্রিটেনের সবচেয়ে বড় ও বিখ্যাত হিথ্রো বিমানবন্দর। আগামী গ্রীষ্ম থেকে এই বিমানবন্দর দিয়ে যাতায়াতে যাত্রীদের আর পাসপোর্টের প্রয়োজন পড়বে না। শুধু একটি ক্যামেরার সামনে দাঁড়িয়েই প্লেনে ওঠার অনুমতি পেয়ে যাবেন যাত্রীরা।

আন্তর্জাতিক একটি সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, লন্ডনের অন্যতম ব্যস্ত বিমানবন্দর গ্যাটউইক বিমানবন্দরেও খুব শিগগিরই ক্যামেরায় ফেসিয়াল রিকগনিশন প্রযুক্তি পরীক্ষামূলকভাবে চালু হচ্ছে। জানা গেছে, ‘ফেসিয়াল রিকগনিশন’ প্রযুক্তির এই সিস্টেমে যাত্রীদের পাসপোর্ট ও ছবির তথ্য স্ক্যান করে ডাটাবেজে সংরক্ষণ করা হবে। পুরো সিস্টেমটি চালু করতে ৫০ মিলিয়ন পাউন্ড ব্যয় করছে হিথ্রো কর্তৃপক্ষ। বাংলাদেশি মুদ্রায় এর পরিমাণ দাঁড়ায় প্রায় ৫শ’ ৪২ কোটি টাকা। এ বিষয়ে এভিয়েশন কনসালট্যান্ট অ্যালেক্স ম্যাকহেরাস বলেন, আমেরিকার প্রধান বিমানবন্দরগুলোতে এই পদ্ধতি প্রযুক্তি চালু হয়েছে। যাত্রীদের সুবিধার কথা মাথায় রেখে এটি বেশ কার্যকর। তিনি বলেন, তবে এখানে একটি বিষয় থেকে যায় তা হলো এই পদ্ধতিতে তথ্য কীভাবে সুরক্ষিত থাকবে সে বিষয়ে গ্রাহকদের উদ্বেগ থাকতে পারে।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Back to top button
Close