‘ইসলামে বৈষম্য নেই, পাশ্চাত্যসমাজ নারীকে পণ্য করেছে’

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগান বলেছেন, ইসলাম ধর্ম নারীর বিরুদ্ধে কোন বৈষম্যকে প্রশ্রয় দেয় না। ইসলামে নারী-পুরুষের সমতার উপর জোরদার দিয়েছে। ইস্তাম্বুলে অনুষ্ঠিত ‘৩য় নারী ও ন্যায়বিচার সম্মেলনে’ তিনি এসব কথা বলেন।

এরদোগান বলেন, বিশ্বাসীরা (মু’মিনরা) লিঙ্গ ও বর্ণ নির্বিশেষে প্রতিটি মানুষকে আল্লাহর সৃষ্টি হিসেবে দেখে। সুতরাং এই বিশ্বাস নিয়ে আমাদের পক্ষে নারীর প্রতি বৈষম্য করা সম্ভব নয়। ব্যবসা ও পারিবারিক জীবনে নারীর ভূমিকা অপরিসীম ও অপরিহার্য বলে উল্লেখ করেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট।

এরদোগান বলেন, ইসলাম ধর্মে এবং তুরস্কের সংস্কৃতিতেও পরিবারকে রূপায়ণ করা হয়েছে নারী ও পুরুষের যৌথ প্রচেষ্টার অভিন্ন সত্তা হিসেবে। যে ধারণা নারীকে ব্যবসা থেকে এবং পুরুষকে পরিবার থেকে দূরে রাখে তা পরিবার প্রথাকে গোড়াতেই কুঠারাঘাত করে।

এরদোগান আরও বলেন, মানবাধিকার, নারী অধিকার, শিশু অধিকার এবং প্রাণী অধিকারের উন্নতি সাধনে সমালোচিত পাশ্চাত্য সংস্কৃতি ত্যাগ করে তুর্কী জনগণের উচিত নিজেদের সংস্কৃতি এবং অতীত ইতিহাসের দিকে ফিরে তাকানো। তবে পশ্চিমা দেশগুলোতে নারীকে পণ্যে পরিণত করা হয়েছে বলে অভিযোগ করে তিনি বলেন, শত শত বছর ধরে নারীদের পণ্যের মতো বিক্রি ও অমানবিক কাজ করতে বাধ্য করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Close