তুরস্কের পার্লামেন্টে রাজনীতিবিদদের বিরল ঐক্য

জনতার পর এবার ঐক্য প্রকাশ করল তুরস্কের সব রাজনৈতিক দল। পার্লামেন্টের জরুরি অধিবেশনে তারা অভ্যুত্থান চেষ্টার বিরুদ্ধে এই ঐক্য প্রকাশ করেছে। শুক্রবার রাতে দেশটির সেনাবাহিনীর একাংশ অভ্যুত্থান ঘটানোর চেষ্টা করে। কিন্তু জনপ্রতিরোধে তা ভেস্তে যায়।
এ অবস্থায় শনিবার জরুরি অধিবেশন আহ্বান করা হয় তুরস্কের পার্লামেন্ট দ্য গ্রান্ড ন্যাশনাল এসেম্বলির। অধিবেশন চলাকালে এর বাইরে হাজার হাজার সাধারণ মানুষ অভ্যুত্থানের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে শ্লোগান দিতে থাকে। পার্লামেন্টের এই বিরল অধিবেশনে উপস্থিত ছিলেন একশ রাষ্ট্রদূত। তারা তুরস্ক সরকারের সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করেন।
এতে বিরল এই অধিবেশনে যোগ দেন নি যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যের রাষ্ট্রদূতরা। পার্লামেন্টের এ অধিবেশন শুরু হয় অভ্যুত্থানচেষ্টাকারীদের হাতে নিহত ব্যক্তিদের প্রতি সম্মান জানানোর জন্য নীরবতা পালনের মধ্যে দিয়ে। এরপর স্পিকার ইসমাইল কাহরামান তুরস্কের জাতীয় সঙ্গীতের ১০টি বাক্যই উচ্চারণ করেন। তার সঙ্গে পার্লামেন্টে উপস্থিত সবাই মুখ মিলান। পার্লামেন্টে প্রধানমন্ত্রী বিনালি ইলদিরিম প্রবেশ করামাত্র তার প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়ে পড়েন সবাই। তিনি এ সময় বিরোধী দলের পার্লামেন্ট সদস্যদের সঙ্গে করমর্দন করেন। এরপর অভ্যুত্থান চেষ্টার বিরুদ্ধে যৌথ বিবৃতি প্রকাশ করা হয়। এতে সম্মতি ছিল পার্লামেন্টের মোট চারটি দলের।
শুক্রবার রাতে গুলেনপন্থি সেনা কমান্ডোরা যে ব্যর্থ অভ্যুত্থান চেষ্টা চালায় তার নিন্দা জানানো হয় এতে। প্রধানমন্ত্রী বিনালি ইলদিরিম জোর দিয়ে বলেছেন, যারা জাতির বড় ক্ষতি করার জন্য অভ্যুত্থান চেষ্টা করেছিল উপযুক্ত শাস্তি তাদের পাওনা।
তিনি আরও বলেন, শনিবার এমন একটি দিন যেদিন তুরস্কের সব রাজনৈতিক দল অভ্যুত্থানের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে। সবাই পার্লামেন্টে যে সহযোগিতা দেখিয়েছে তাতে নতুন করে আমাদের যাত্রা শুরু হবে। প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের পর পার্লামেন্টে বক্তব্য রাখেন রিপালিকান পিপলস পার্টির চেয়ারম্যান কামাল কিলিকদারোগলু। তিনি অভ্যুত্থান চেষ্টার তীব্র নিন্দা জানান। এর বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে সব রাজনৈতিক দল। অভ্যুত্থানের বিরুদ্ধে সব দলের ডেপুটিরা গণতন্ত্রকে গ্রহণ করেছেন। অভ্যুত্থান চেষ্টার নিন্দা করেছেন ন্যাশনালিস্ট মুভমেন্ট পার্টি চেয়ারম্যান ডেভলেট বাহসেলি। তিনি অভ্যুত্থান চেষ্টাকে সন্ত্রাসী হামলা বলে আখ্যায়িত করেন। পিপলস ডেমোক্রেটিক পার্টির ডেপুটি গ্রুপ চেয়ারম্যান ইদ্রিস বালুকেন তীব্র ভাষায় অভ্যুত্থান চেষ্টার নিন্দা জানান।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Back to top button
Close