দিল্লির নিষেধাজ্ঞা মোটেও সমর্থনযোগ্য নয়

Lesli
ব্রিটিশ চলচ্চিত্র নির্মাতা লেসলি উডউইন

নির্ভয়ার তথ্যচিত্রের বিষয়ে নয়াদিল্লির নিষেধাজ্ঞা মোটেও সমর্থনযোগ্য নয় বলে মন্তব্য করেছেন ব্রিটিশ চলচ্চিত্র নির্মাতা লেসলি উডউইন। শুক্রবার জি-নিউজের প্রতিবেদনে এ তথ্য পাওয়া গেছে। উল্লেখ্য, ভারতের তরফ থেকে সারা বিশ্বেই গণধর্ষণের এই তথ্যচিত্রটি সম্প্র্রচারে নিষেধাজ্ঞা জারি করার আবেদন জানানো হয়েছে। কিন্তু ভারত সরকারের এ আবেদনে কান না দিয়ে বৃহস্পতিবার সকালে তথ্যচিত্রটি সম্প্রচার করেছে বিবিসি। এর পরিপ্রেক্ষিতে বিবিসিকে আইনি নোটিশও দিয়েছে নয়াদিল্লি। নোটিশে চুক্তি ভেঙে বাণিজ্যিক উদ্দেশ্যে তথ্যচিত্র সমপ্রচারের অভিযোগ করা হয়েছে।
নির্ভয়ার তথ্যচিত্রটি ভারতে নিষিদ্ধ হওয়ায় বাকস্বাধীনতা কেড়ে নেয়া হয়েছে অভিযোগ করে এর পরিচালক লেসলি উডইউন বলেন, ‘ভারতের পক্ষ থেকে তথ্যচিত্রটি প্রকাশে বাধা দেয়া হচ্ছে। যা মোটেও সমর্থনযোগ্য নয়।’
এদিকে দিল্লি গণধর্ষণের ওপর তৈরি এই তথ্যচিত্রে ভারতের নিষেধাজ্ঞা ও বিভিন্ন কূটনৈতিক তৎপরতা সমর্থন করছেন না এর পরিচালক অনুরাগ কাশ্যপও। তিনি বলেছেন, ‘এ নিষেধাজ্ঞা মেনে নেয়া মোটেও যুক্তিযুক্ত নয়।’
ইউটিউবের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ছে তথ্যচিত্রটি
নির্ভয়ার তথ্যচিত্রটি সম্প্রচারে বাধা নিষেধ সত্ত্বেও ইউটিউবের কল্যাণে লক্ষ লক্ষ মানুষের কাছে ছড়িয়ে পড়েছে । বিবিসি-কে ঠেকাতে না পারলেও ইউটিউব কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে লেসসি উডউইনের তথ্যচিত্রটির লিংক সরিয়ে ফেলা সম্ভব হয়েছে বলে দাবি করেছে ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সাইবার সেল বলছে, বৃহস্পতিবার রাত থেকেই ইউটিউবের মাধ্যমে ছড়িয়েছে তথ্যচিত্রটি। আর এরই মধ্যে অন্তত কয়েক লক্ষ হিট হয়ে গিয়েছে লিংকটিতে। আর এর পরেই ইউটিউব কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করে মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে তাদের বোঝানো হয়েছে যে, বিষয়টি অত্যন্ত স্পর্শকাতর। এ ব্যাপারে ভারত সরকারের দায়বদ্ধতা রয়েছে। এরপর বৃহস্পতিবার রাতেই লিংকটি সরিয়ে নিয়েছে ইউটিউব। কিন্তু এতে কতটা কাজ হবে তা নিয়েও সংশয় প্রকাশ করেছেন ওই মন্ত্রণালয়ের অনেক কর্মকর্তাই। কারণ, লিংক সরানোর আগে তথ্যচিত্রটি বেশ কয়েক হাজার বার ডাউনলোড করা হয়েছে। যা পরে হোয়াটসঅ্যাপ বা ই-মেলের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে আরও অনেকের কাছে।
তথ্যটিত্রটি দেখার আহ্বান নির্ভয়ার বাবার
এদিকে ভারতে নিষিদ্ধ হওয়ার পর সবাইকে ‘ইন্ডিয়াস ডটার’ নামে তথ্যচিত্রটি দেখার আহ্বান জানিয়েছেন নির্ভয়ার বাবা। উল্লেখ্য, ২০১২ সালে দিল্লির প্রকাশ্য রাজপথে চলন্ত বাসে নির্ভয়া গণধর্ষণ ও পরবর্তী ঘটনা প্রবাহের ওপর নির্মিত ‘ইন্ডিয়াস ডটার’ নামের বিবিসির তথ্যচিত্রটি সমপ্রচারের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে নরেন্দ্র মোদি সরকার। কিন্তু শুক্রবার কার্যত সেই নিষেধাজ্ঞার ওপরই পুরো চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিলেন নির্ভয়ার বাবা। বললেন এই তথ্যচিত্র সমাজের প্রকৃত মানসিকতার প্রতিচ্ছবি, প্রতেক্যের অবশ্যই ‘ইন্ডিয়াস ডটার’ দেখা উচিত। এদিকে অপরাধী পক্ষের আইনজীবীর ঘৃণ্য মন্তব্য এই তথ্যচিত্রটির মাধ্যমে প্রকাশ্যে আসায় তার শাস্তির দাবি জানিয়েছেন নির্ভয়ার মা। তার মতে এই তথ্যচিত্রে শুধুমাত্র সত্যিটাই উঠে এসেছে।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Back to top button
Close