ব্রিটেনের মিলিটারি ব্যারাকে আশ্রয়প্রার্থীদের রাখায় বিশপদের গভীর উদ্বেগ

যুক্তরাজ্যের ৩৫ জন নেতৃস্থানীয় বিশপ দেশটিতে আশ্রয় প্রার্থীদের বাসস্থান হিসেবে ব্যবহৃত ২ টি মিনিষ্ট্রি অব ডিফেন্স (এমওডি) সাইটের পরিবেশের ব্যাপারে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। গত সেপ্টেম্বর থেকে এগুলোতে আশ্রয় প্রার্থীরা বসবাস করছেন। বিশিষ্ট বিশপগন হোম অফিসে সাময়িক আশ্রয় প্রার্থীদের বাসস্থান হিসেবে সামরিক ব্যারাকগুলোর ব্যবহারকে দায়িত্বহীন ও অনুপযুক্ত কর্ম হিসেবে অবিহিত করেন। তারা এ অবস্থার অবসানের আহ্বান জানান।

কেন্টের ল্যাপিয়ার ব্যারাকসমূহ এবং পেমব্রোকশায়ারের পেনাল্টি ট্রেনিং ক্যাম্পে গত সেপ্টেম্বর মাসে আশ্রয় প্রার্থীদের বাসস্থান হিসেবে নির্ধারন করা হয়। এগুলো পরিদর্শন করে দেখা গেছে, বৈশ্বিক মহামারির সময় এর ২০ জনেরও বেশী বাসিন্দা ভাগাভাগি করে ডর্মিটরীগুলো ব্যবহার করেছেন। এ ব্যাপারে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে চিঠিতে স্বাক্ষরকারী বিশপরা এই বলে সতর্কবাণী উচ্চারন করেন যে, এমনকি অস্থায়ী ব্যবস্থা হিসেবেও আশ্রয় প্রার্থীদের বাসস্থান হিসেবে সামরিক ভবনের ব্যবহার সম্পূর্ন অনুপযুক্ত।
এই দু’টো ক্যাম্পে কয়েকশ লোকের বসবাস নিয়ে মন্ত্রীদের ওপর চাপ বাড়ছে। চাপ বাড়ছে নিরাপত্তা এবং লিগ্যাল এডভাইস ও হেলথ কেয়ারের প্রবেশ নিয়ে। গত মাসে ন্যাপিয়ার ব্যারাকস- এ কভিড মহামারি ছড়িয়ে পড়লে এখানে বাসিন্দাদের বসবাস নিষিদ্ধ করা হয়। এদের মধ্যে ১২০ জনেরও বেশী বাসিন্দার করোনাভাইরাস সংক্রমণ শনাক্ত হয়।
তা সত্বেও ইমিগ্রেশন মন্ত্রী ক্রিস ফিলপ প্রাক্তন আর্মি ব্যারকগুলোতে আশ্রয় প্রার্থীদের বসবাস সমস্যাপূর্ন, তা মানতে রাজী নন। তিনি গত সোমবার দাবি করেন, আশ্রয় প্রার্থীদের জন্য ন্যাপিয়ার ব্যারাকস উপযুক্ত ও যথাযথ।
অবশ্য বিশপগন এটা স্বীকার করেন যে, মন্ত্রীরা নজিরবিহীন চাপ মোকাবেলা করছেন স্ট্যাটাসের ব্যাপারে একটি সিদ্ধান্তের জন্য অপেক্ষমাণদের বাসস্থান প্রদানের ক্ষেত্রে। তা সত্বেও তারা আশ্রয় প্রার্থীদের জন্য একটি সুবিধাজনক, মর্যাদাপূর্ন বাসস্থানের ব্যবস্থা করার ব্যাপারে একটি দীর্ঘমেয়াদী টেকসই পরিকল্পনা গ্রহনের আহ্বান জানান।
ডুরহ্যামের বিশপ রেভারেন্ড পল বাটলার বলেন, ইংল্যান্ড ও ওয়েলস এর বিস্তৃত চার্চগুলোর সমর্থনের ব্যাপকতা এই ইস্যুর ওপর অভিমতের শক্তিমত্তা প্রদর্শন করছে। যুক্তরাজ্যে আসার পর আশ্রয়প্রার্থীদের স্বাগত জানাতে আমরা কীভাবে সিদ্ধান্ত নেবো সেটা একটি জাতি হিসেবে আমরা কেমন তার গুরুত্বপূর্ণ প্রকাশ ঘটাবে।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Back to top button
Close