বিবিসি নির্বাচিত ১০০ নারীর তালিকায় ২৩ মুসলিম নারী

সুন্দর ভবিষ্যৎ নির্মাণের স্বপ্ন সবার মাঝে ছড়িয়ে দিতে মানুষের সফলতার গল্পগুলো অনুপ্রেরণা হিসেবে কাজ করে থাকে। বর্তমান সময়ে সারাবিশ্বে মুসলিম নারীদের নিয়ে গড়ে ওটা ভুল ধারণা ও গৎবাঁধা দৃষ্টিভঙ্গিগুলো পরিবর্তন করতে তাদের সফলতার গল্পগুলো বেশি করে প্রচার করা প্রয়োজন। ঘটনাবহুল ২০২০ সালের শেষে বিবিসি বিশ্বজুড়ে ১০০ জন গুণী নারীর তালিকা প্রকাশ করেছে। যেই তালিকায় স্থান করে নিয়েছেন মুসলিম নারীরাও, যা সকলের জন্য অনুপ্রেরণামূলক। নিচে তাদের মধ্যে কয়েকজনের নাম উল্লেখ করা হলো:
বিলকিস দাদি
বিলকিস দাদি ৮২ বছর বয়সী একজন ভারতীয় নারী, যিনি দিল্লীতে বসবাস করেন। তিনি বয়সের ভারে নুইয়ে পড়লেও অন্যায় দেখে বসে থাকেননি। তিনি বিতর্কিত নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের বিরুদ্ধে নারী সংগঠনের সাথে আন্দোলনে যোগ দিয়েছিলেন।
সারাহ-আল আমেরি
সারাহ-আল আমেরি সংযুক্ত আরব আমিরাতের মন্ত্রিসভার উন্নত প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী। একইসাথে তিনি ওই দেশের বিজ্ঞান পরিষদের চেয়ারম্যান ও আমিরাত মঙ্গল গ্রহ মিশনের ডেপুটি প্রজেক্ট ম্যানেজার। হিজাব পরিহিত ওই নারী দেশটির মহাকাশ সংস্থা নিয়ন্ত্রণ করেন।
সোমায়া ফারুকী
আফগান অল-গার্লস রোবোটিক্স দল ‘আফগান ড্রিমার্সের’ নেত্রী হলেন সোমায়া ফারুকী। আফগানিস্তানে কোভিড-১৯-এর প্রথম সংক্রমণ ঘোষিত হওয়ার পরে সোমায়া ও তার দল রোগীদের জন্য স্বল্পমূল্যে ভেন্টিলেটর তৈরির ঘোষণা দেন।
ইমান গালিব আল-হামলি
ইয়েমেনের এ নারী আরো ১০ নারীর সহায়তায় সৌর মাইক্রোগ্রিড স্থাপন করেছেন। যুদ্ধবিধ্বস্ত ইয়েমেনে ওই মাইক্রোগ্রিডটি কম শক্তি খরচে চালিত হয়।
সাফা কুমারী
সাফা কুমারী সিরিয়ার একজন উদ্ভিদ ভাইরোলজিস্ট। তিনি ফসল ধ্বংসকারী মহামারি নিরাময়ে কাজ করছেন। খাদ্য নিরাপত্তাহীন সিরিয়ায় তার কাজ বেশ তাৎপর্যপূর্ণ।
তালিকায় আরো আছেন পাকিস্তানী অভিনেত্রী মাহিরা খান ও পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর দারিদ্র্যবিমোচন বিষয়ক বিশেষ সহকারী সানিয়া নিশতার। আছেন বাংলাদেশের রিনা আক্তার ও রিমা সুলতানা রিমু।
রিমা সুলতানা রিমু একজন শিক্ষক এবং তিনি কক্সবাজারভিত্তিক ইয়াং উইমেন লিডার্স ফর পিস-এর একজন সদস্য।
রিনা আক্তারের সম্পর্কে বিবিসি’র বর্ণনায় বলা হয়েছে, মাত্র আট বছর বয়সে তার এক আত্মীয় তাকে পতিতালয়ে বিক্রি করে দিয়েছিলো।
সেখানেই তিনি বেড়ে ওঠেন ও পরে পতিতায় পরিণত হন। কিন্তু এখন তিনি অন্য পতিতাদের জীবনমানের উন্নয়নে কাজ করছেন।
করোনাভাইরাস মহামারির সময়ে রিনা ও তার টিম ঢাকায় প্রতি সপ্তাহে অন্তত চার শ’ পতিতাকে খাবার সরবরাহ করেছেন।
তালিকায় থাকা আয়েশা ইউসুফু একজন নাইজেরিয়ান অ্যাক্টিভিস্ট। তিনি তার দেশে সুশাসনের দাবি তুলে ধরেছিলেন। ওয়াদ আল-কাতাব সিরিয়ার একজন অ্যাক্টিভিস্ট ও সাংবাদিক। তিনি পুরস্কারপ্রাপ্ত একজন চলচ্চিত্র নির্মাতাও।
তালিকায় আরো রয়েছেন সোমালিয়ায় শান্তি প্রক্রিয়ায় ফ্রন্টলাইনে থাকা তরুণী নেত্রী ইলওয়াদ ইলমান। হেনডেন অ্যাক্টিভিস্ট আফগানি লালেহ ওসমানি ‘হয়ার ইজ মাই নেম’ প্রচারণার নেত্রী। এছাড়া ফেবফি সেটিয়াবাতি একজন ইন্দোনেশিয়ান অ্যাক্টিভিস্ট।
বিবিসির ২০২০ সালের ১০০ নারীর মধ্যে স্থানপ্রাপ্ত মুসলিম নারীদের তালিকাটি হলো :
রিমা সুলতানা রিমু, রিনা আকতার, সাহেদা বেগম, হোদা আবউজ, সারা আল-আমিরি, ওয়াদ আল-কাতিব, উবাহ আলী, নিসরিন আলওয়ান, নাদীন আশরাফ, বিলকিস, ইলওয়াদ ইলমান, সোমায়া ফারুকী, ইমান গালিব আল-হামলি, গ্যালসাম কাভ, সালসাবিলা খায়রুননিসা, মাহিরা খান, সাফা কুমারী, হায়াত মিরশাদ, সানিয়া নিশতার, লালেহ ওসমানী, ফেবফি সেটিয়াবাতি, নাসরিন সোতৌদেহ, রিমা সুলতানা রিমু ও আয়েশা ইউসুফু। -দ্য ইসলামিক ইনফরমেশন ও বিবিসি

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Back to top button
Close