অন্ধ মহিলার ভবিষ্যত বাণী: ২০২০ সালে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ‘রহস্যময় রোগে’ আক্রান্ত হবেন

মার্কিন প্রেসিডেন্ট সম্পর্কে বুলগেরিয়ার অন্ধ আধ্যাত্মিক শক্তিসম্পন্ন মহিলা বাবা ভাংগার ভবিষ্যদ্বানী শেষ পর্যন্ত বাস্তবে পরিনত হয়েছে বলে অনেকের অভিমত। ১৯৮৯ সালে এই অন্ধ ভবিষ্যত বক্তা বলেছিলেন যে, ২০২০ সালে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট এক রহস্যময় রোগে আক্রান্ত হবেন। বাবা ভাংগাকে ‘বলকানের নস্ট্রাদামুস’ বলে আখ্যায়িত করা হয়। ২৩ বছর আগে তিনি মারা যান।

বাবা ভাংগার ভক্তরা মনে করেন, বাবা ভাংগা সঠিকভাবেই ট্রাম্পের রহস্যময় অসুস্থতার বিষয়ে ভবিষ্যদ্বানী করেছিলেন।
বাবা ভাংগার অলৌকিক শক্তি এবং ভবিষ্যত দর্শনের ক্ষমতা ছিলো বলে অনেকের অভিমত। বলকানের এই অন্ধ মহিলার বক্তব্য অনুসারে, ৫০৭৯ সালে বিশ্ব জগত ধ্বংস হয়ে যাবে।
এই মনস্তাত্তিক বর্তমান মেসিডোনিয়ার একটি খামারে বেড়ে ওঠেন। তিনি একটি বালুঝড়ে অন্ধ হয়ে যান, যা তাকে একটি ‘দ্বিতীয় দৃষ্টি’ প্রদান করে। তার ভক্তরা এটা বিশ্বাস করেন। ৮৫ বছর বয়সে মৃত্যুর আগে তিনি ২০২০ সালের ব্যাপারে অনেকগুলো ভবিষ্যত বানী করে যান। বাবা ভাংগার ভবিষ্যত বানী অনুসারে, যুক্তরাষ্ট্রের ৪৫তম প্রেসিডেন্ট নিকট অতীতের এক পর্যায়ে একটি অজানা রোগে মৃত্যুবরণ করবেন। এই অসুখ প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের শ্রবণশক্তি কেড়ে নেবে, তার টিন্নিটাস ও ব্রেইন ট্রোমা দেখা দেবে। অনেকের দাবি, এটা করোনাভাইরাসের যথাযথ ভবিষ্যত বানী। গত সপ্তাহের প্রথম দিকে তার করোনাভাইরাস পজিটিভ সনাক্ত হয়।
গত শুক্রবার হোয়াইট হাউসে এক ব্যতিক্রমধর্মী দৃশ্যের অবতারণা হয়। প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে হেলিকপ্টারে করে রাজধানী ওয়াশিংটন ডিসি’র নিকটে একটি মেডিকেল নিয়ে যাওয়া হয়। হোয়াইট হাউস সূত্র স্বীকার করে যে, ঐদিন তার অবস্থা গুরুতর ছিলো। ট্রাম্পের শ্বাস কষ্ট হওয়ায় তাকে অক্সিজেন দিতে হয়েছিলো।
হোয়াইট হাউসের ডাক্তার সীন পি কোনলি বলেন, ট্রাম্পকে এক ডোজ রেমডেসিভির দেয়া হয়।
জনৈক ভক্ত টুইটারে লিখেন, ‘আমি বছর খানেক আগে এই ভবিষ্যত বানীর কথা শুনেছিলাম, তখন বিশ্বাস করিনি। এখন করছি’। অপর একজন লিখেন, ‘যদি বাবা ভাংগা সঠিক হন, তবে আমি আমার মাথা টুপি খেয়ে ফেলবো’। ১৯৮৯ সালের এক ভবিষ্যত বানীতে বাবা ভাংগা বলেন, ভয়াবহ, ভয়াবহ, ইস্পাতের পাখির আঘাতের পর আমেরিকান ভাইয়েরা পতিত হচ্ছে। নেকড়েরা এক ঝোপে গর্জন করছে এবং নিষ্পাপদের রক্তপাত হচ্ছে। বলা হয়, এটা ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারে নাইন/ইলিভেনের ঘটনার ব্যাপারে ভবিষ্যত বানী।
১৯৯৬ সালে এই অন্ধ ভবিষ্যত বক্তা মারা যান। বলা হয়, ব্রেক্সিট ও আইএসআইএস-সহ ইতিহাসের অনেকগুলো প্রধান ঘটনার বিষয়ে তিনি সঠিকভাবে ভবিষ্যতবানী প্রদান করেন। অবশ্য বাবা ভাংগা সকল ভবিষ্যতবানী সত্য হয়নি। তিনি বলেছিলেন, ২০১০ থেকে ২০১৪ সালের মধ্যে একটি পরমাণু যুদ্ধ হবে। কিন্তু সেটা হয়নি।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Back to top button
Close