ইংল্যান্ড ও ওয়েলসের ৩ মিলিয়নেরও বেশি প্রাপ্তবয়স্ক শিশু যৌন নির্যাতনের শিকার

নতুন পরিসংখ্যানে দেখা গেছে, ইংল্যান্ড এবং ওয়েলসের ৩ মিলিয়নেরও বেশি প্রাপ্তবয়স্ক শিশু যৌন নির্যাতনের নির্যাতনের শিকার হয়েছিল। সাতজন প্রাপ্তবয়স্কদের মধ্যে যাদের শিশু নির্যাতনের অভিজ্ঞতা র‌য়ে‌ছে তাদের একজন বলেছেন যে তারা এর আগে কাউকে এ সম্পর্কে কিছু বলেনি, আজ বাচ্চাদের বিরুদ্ধে নির্যাতনের প্রতিবেদন সম্পর্কে উদ্বেগ প্রকাশ করেন।

অফিস ফর ন্যাশনাল স্ট্যাটিস্টিক্সের (ওএনএস) প্রকাশিত তথ্যে দেখা গেছে যে ১৮ থেকে ৭৪ বছর বয়সী প্র‌তি ১৩ জন প্রাপ্তবয়স্কের মধ্যে একজন ১৬ বছর বয়সের আগে যৌন নির্যাতনের শিকার হয়েছিল। ২৪.৪ মিলিয়ন মহিলা এবং ৭০৯,০০০ জন পুরুষ। এর মধ্যে ধর্ষণ বা অনুপ্রবেশ দ্বারা হামলা (চেষ্টা সহ), অন্যান্য যোগাযোগের যৌন নির্যাতন, এবং যোগাযোগ ছাড়াই যৌন নির্যাতনের অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।

ওএনএস ইংল্যান্ড এবং ওয়েলস-এর ক্রাইম সার্ভেতে প্রশ্ন যুক্ত করে এবং তথ্যের অন্যান্য উৎসগুলির পাশাপাশি এটি বিশ্লেষণ করে যুক্তরাজ্যে শিশু নির্যাতনের একটি বিস্তৃত চিত্র তৈরির কাজ কর‌েছে। এতে দেখা গেছে যে, সামগ্রিকভাবে, পাঁচজন প্রাপ্তবয়স্কের মধ্যে একজনের শিশু নির্যাতনের একধরনের অভিজ্ঞতা রয়েছে – যার মধ্যে যৌন ও শারীরিক নির্যাতনের পাশাপাশি অবহেলা ও মানসিক নির্যাতন র‌য়ে‌ছে।

এনএসপিসিসির জনসংযোগ ব্যবস্থাপক অ্যান্ড্রু ফেলো বলেছেন যে ওএনএসের প্রতিবেদনে অতীতের শিশু নির্যাতনের মাত্রাটি উন্মোচিত করার সময় এটি আরও জোর দিয়েছিল যে কর্তৃপক্ষ ‘‘এখনই জানেন না যে কতটা শিশু এই মুহুর্তে ভুগছে’’। ইংল্যান্ড এবং ওয়েলস-এর ক্রাইম জরিপের পূর্ববর্তী পরিসংখ্যান থেকে জানা গেছে যে শিশু নির্যাতনের শিকার অর্ধেকেরও বেশি লোক পরবর্তী জীবনে গৃহকর্মী নির্যাতনের শিকার হন।

ওএনএস-এর সেন্টার ফর ক্রাইম অ্যান্ড জাস্টিসের আলেক্সা ব্র্যাডলি বলেছেন: “শিশু নির্যাতন সমাজের সবচেয়ে দুর্বল কিছু লোকের বিরুদ্ধে এক ভীষণ ভয়ংকর অপরাধ, তবে এটি এমন কিছু বিষয় যা নিয়ে খুব কম আলোচনা বা বোঝা যায় না। আজকের প্রকাশটি এই সমালোচনামূলক ইস্যুতে একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রমাণ ব্যবধান পূরণ করার ওএনএসের প্রথম প্রচেষ্টা।

‘‘শিশু নির্যাতনের মাত্রা এবং প্রকৃতি পরিমাপ করা কঠিন কারণ এটি সাধারণত গোপন থাকে এবং বিভিন্ন আকারে আসে। বিভিন্ন উৎস থেকে ডেটা একত্রিত করা আমাদের শিশু নির্যাতনের প্রকৃতি এবং সহায়তা পরিষেবাদির সম্ভাব্য চাহিদা উভয়কেই আরও ভালভাবে বুঝতে সহায়তা করে।’’

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Back to top button
Close