আমস্টারডামে প্রথমবার মাইকে আজান

নানা প্রতিকূলতা ও সীমাবদ্ধতা উপেক্ষা করে নেদারল্যান্ডসের রাজধানী আমস্টারডামে প্রথমবার মাইকে আজান প্রচার হয়েছে। স্থানীয় মুসল্লিসহ ভিন্ন ধর্মাবলম্বীরাও মসজিদের বাইরে দাঁড়িয়ে প্রথমবারের মতো আজান শোনার অভিজ্ঞতা অর্জন করেছেন। গত শুক্রবার জুমার ওই মুহূর্তটি স্মরণীয় করে রাখতে অনেকেই তাদের সেলফোনে রেকর্ড করে রাখেন।

মসজিদের মুখপাত্র নুরদীন ওয়াইল্ডম্যান আনাদলুকে জানান, এক সপ্তাহ আগের জুমায় এই আজান প্রচার করার কথা ছিল। কিন্তু বাধা সত্ত্বেও চলতি সপ্তাহের জুমায় লাউডস্পিকারে আজান প্রচার হয়। এতে তিনি অত্যন্ত সম্মানিত বোধ করছেন।

তিনি বলেন, আজান প্রচারের পর স্থানীয়দের কাছ থেকে নানা ধরনের প্রতিক্রিয়া পাওয়া যাচ্ছে। কেউ সমালোচনা করেন। কেউ ইতিবাচক জানিয়েছেন।

উরসুলা ভ্যান স্পর্নসেন নামে ভিন্ন ধর্মাবলম্বী একজন জানান, তিনি স্থানীয় বাসিন্দা। আজান শোনার জন্যই প্রথমবার এই মসজিদে আসেন। এটি শুনতে অনেক ভালো লাগছিল।

আমস্টারডামের ব্লু মস্ক বা নীল মসজিদ নামে পরিচিত মসজিদটিতে ৮ নভেম্বর প্রথম আজান প্রচার করার পরিকল্পনা করা হয়েছিল। কিন্ত কিছু দুষ্কৃতকারি অডিও সিস্টেমের তার কেটে দেয়ার ফলে এক সপ্তাহ পরে আজান প্রচার করার সময় নির্ধারিত হয়।

নেদারল্যান্ডসজুড়ে শতকরা ৭ ভাগ মসজিদে বছরের পর বছর ধরে লাউডস্পিকারে আজান প্রচার করা হচ্ছে। কিন্তু রাজধানী আমস্টারডামে এই প্রথম আজান প্রচার করা হয়। নেদারল্যান্ডে প্রায় ৫০০টির মতো মসজিদ রয়েছে।

ইসলাম নেদারল্যান্ডসের দ্বিতীয় বৃহত্তম ধর্ম হলেও দেশটিতে মুসলমানদের নানা প্রতিকূলতার মধ্য দিয়ে বসবাস করতে হয়। দেশটিতে গত কয়েকমাস আগে নেকাব নিষিদ্ধকরণের আইন কার্যকর হয়েছে। গত দশ বছরে দেশটিতে প্রায় ৩০০টি মসজিদ হামলার শিকার হয়েছে।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Back to top button
Close