দেশব্যাপী উদযাপিত হচ্ছে পবিত্র ঈদুল ফিতর

দীর্ঘ এক মাস সিয়াম সাধনার পর ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা এবং ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে বুধবার দেশব্যাপী মুসলমানদের সর্ববৃহৎ ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপিত হচ্ছে। এবছরের ঈদুল ফিতর উদযাপনের সিদ্ধান্ত নিয়ে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সিদ্ধান্ত নিয়ে তর্কবিতর্ক ছিল। মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে ধর্মপ্রতিমন্ত্রী শেখ মো. আব্দুল্লাহ প্রেস ব্রিফিংয়ে জানান, মঙ্গলবার পবিত্র শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা না যাওয়ায় বৃহস্পতিবার পালিত হবে ঈদুল ফিতর। তবে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে শতাধিক ব্যক্তি পবিত্র শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখেছেন বলে খবর আসতে থাকে। পরে পবিত্র শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখার ঘোষণাপত্র সংশোধন করে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটি। মঙ্গলবার রাত ১১টার দিকে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মো. আব্দুল্লাহ দ্বিতীয় ব্রিফিংয়ে গণমাধ্যমকে জানান, দেশের আকাশে মঙ্গলবার চাঁদ দেখা গেছে। ফলে বুধবার সারাদেশে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপিত হবে।

রাজধানীতে ঈদের প্রধান জামাত হাইকোর্ট প্রাঙ্গণে জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে সকাল সাড়ে ৮টায় অনুষ্ঠিত হয়েছে। রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে সর্বস্তরের মানুষের সাথে ঈদের নামাজ আদায় করেন। নামাজ আদায় শেষে মুসল্লিরা একে অপরের সাথে কোলাকুলি করেন। উৎসবের আমেজে মুসলমানরা নতুন কাপড় পরে তাদের আত্মীয়-স্বজনের বাড়িতে গিয়ে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করছেন।

কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়া এবং দিনাজপুরের গোর-এ শহীদ বড় ময়দানে দুটি বৃহৎ ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। সেই সাথে দেশের বিভিন্ন মসজিদ, ঈদগাহ ময়দান এবং খোলা মাঠেও ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে।

ঈদের দিন সরকারি ও বেসরকারি অফিস ভবনে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়েছে। সেই সাথে শহরের প্রধান সড়ক ও সড়কদ্বীপগুলো জাতীয় পতাকা এবং বাংলা ও আরবিতে ঈদ মোবারক লেখা পতাকায় সাজানো হয়েছে। টেলিভিশন চ্যানেল ও রেডিও স্টেশনগুলো বিশেষ অনুষ্ঠানমালা সম্প্রচার করছে।

ঈদ উপলক্ষে কারাগার, হাসপাতাল, সরকারি শিশু কেন্দ্র, ছোটমনি নিবাস ও আশ্রয় কেন্দ্রগুলোতে বিশেষ খাবারের ব্যবস্থা করা হয়েছে। প্রিয়জনের সঙ্গে ঈদ উপযাপন করতে রাজধানী ছেড়েছেন লাখ লাখ মানুষ। ঈদ উপলক্ষে দেশবাসীকে শুভেচ্ছা জানিয়ে পৃথক বাণী দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ঈদ উপলক্ষে কারাগার, হাসপাতাল, সরকারি শিশু কেন্দ্র, ছোটমনি নিবাস, আশ্রয় কেন্দ্রগুলোতে বিশেষ খাবার পরিবেশন করা হচ্ছে। এদিকে রাজধানীসহ সারাদেশের নিরাপত্তায় ব্যাপক সংখ্যক আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য মোতায়েন রয়েছে।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Close