প্রত্যাখাত হয়েছে থেরেসা মে’র ব্রেক্সিট সংক্রান্ত খসড়া চুক্তি

কোনও ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী হিসেবে পার্লামেন্টে সর্বোচ্চ ব্যবধানে হারলেন থেরেসা মে

২৩০ ভোটের ব্যবধানে পার্লামেন্টে প্রত্যাখাত হয়েছে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে’র ব্রেক্সিট সংক্রান্ত খসড়া চুক্তি। ভোটে হারার পর ঘোষণা দিয়েছেন সরকারের বিরুদ্ধে আস্থা ভোটকে স্বাগত জানাবেন তিনি। বুধবার এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি। কোনও ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী হিসেবে পার্লামেন্টে সর্বোচ্চ ব্যবধানে হারলেন থেরেসা মে।

২০১৯ সালের ২৯ মার্চের মধ্যে যুক্তরাজ্যের ইউরোপীয় ইউনিয়ন ছেড়ে আনুষ্ঠানিকভাবে বের হয়ে যাওয়ার কথা। পরবর্তী সম্পর্কের রূপরেখা নিয়ে জোটটির সঙ্গে একটি চুক্তিতে পৌঁছেছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী মে। পার্লামেন্টে সেই চুক্তি অনুমোদনের বাধ্যবাধকতায় মঙ্গলবার ভোটাভুটি অনুষ্ঠিত হয়।

৬৫০ আইনপ্রণেতার ব্রিটিশ পার্লামেন্টে স্পিকার ও তার ৩ সহযোগী মিলে ৪ জনের ভোট দানের অধিকার নেই। আইরিশ রিপাবলিকান পার্টির আইনপ্রণেতারা তাদের আসনে বসেন না। সে কারণে ৬৩৯ ভোটের মধ্যে ৩২০ আইনপ্রণেতাদের ভোটে সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিশ্চিত হওয়ার কথা ছিল। ভোটাভুটিতে থেরেসা মে প্রস্তাবিত খসড়া চুক্তির বিরুদ্ধে ভোট দিয়েছেন ৪৩২ জন আইনপ্রণেতা। আর পক্ষে ভোট দিয়েছেন ২০২ আইনপ্রণেতা।

এর আগে তিন ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ান, বিবিসি ও দ্য ইন্ডিপেনডেন্টের খববে বলা হয় ২৬২ আসনের লেবার দলের ভোটাধিকার থাকা ২৫৬ জনের প্রায় সব আইনপ্রণেতাই থেরেসার বিপক্ষে ভোট দিতে যাচ্ছেন। অপরদিকে ৩১৮ আসনসম্পন্ন কনজারভেটিভ পার্টির ভোট সংখ্যা ৩১৬টি। তাদের মধ্যে একশো জন প্রধানমন্ত্রীর প্রস্তাবের বিরুদ্ধে ভোট দেবেন বলে আশঙ্কার কথা জানায় দ্য ইন্ডিপেনডেন্ট।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Close