রাজনীতিতে যোগ দিচ্ছেন অ্যাঞ্জেলিনা জোলি!

রাজনীতিতে যোগ দেওয়ার আভাস দিলেন অস্কারজয়ী হলিউড অভিনেত্রী অ্যাঞ্জেলিনা জোলি। বিবিসির ‘টুডে’তে তিনি জানান, ভবিষ্যতে রাজনীতি করার বিষয়টি ভাবছেন। শুক্রবার প্রচারিত অনুষ্ঠানটির অতিথি সম্পাদক ছিলেন জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থার এই শুভেচ্ছাদূত।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে কখনও প্রার্থী হবেন কিনা জানতে চাইলে জোলির উত্তর, ‘২০ বছর আগে এই প্রশ্নটা করলে আমি হেসে উড়িয়ে দিতাম। তবে নিজেকে যেখানে প্রয়োজনীয় মনে হয় সেটাই করি। রাজনীতির জন্য আমি উপযুক্ত কিনা জানি না। তবে সরকার ও সেনাবাহিনীর সঙ্গে কাজ করতে আমি সক্ষম। তাই আরও বড় পরিসরে কিছু করতে পারবো এমন জায়গায় বসতে চাই।’

শরণার্থী, যৌন সহিংসতা ও প্রাকৃতিক পরিবেশ সংরক্ষণে জোলির কণ্ঠস্বর বরাবরই থাকে জোরালো। ‘টুডে’ অনুষ্ঠানে মার্কিন রাজনীতি, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম, যৌন নির্যাতন ও বিশ্বব্যাপী শরণার্থী সংকট নিয়ে আলোচনা করেন ৪৩ বছর বয়সী এই তারকা।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সন্তানদের কার্যক্রম দেখাশোনা করতে গিয়ে হিমশিম খাচ্ছেন বলে জানান জোলি। অনেক অভিভাবকের মতো তার পক্ষেও সব নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হচ্ছে না। তিনি বললেন, ‘এখনকার কিশোর-কিশোরী ও তরুণ-তরুণী প্রযুক্তি দিয়ে যা করছে তার অর্ধেকই বুঝতে পারে না আমাদের প্রজন্ম।’

জানা গেছে, বিবিসির নতুন সাপ্তাহিক শিশুতোষ অনুষ্ঠানে নির্বাহী প্রযোজক হিসেবে কাজ করবেন জোলি। এর মাধ্যমে ৭ থেকে ১২ বছর বয়সীদের প্রযুক্তি, পরিবেশ ও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের খবর পরিবেশন করাই তাদের লক্ষ্য। নতুন বছরে এর প্রচার শুরু হবে।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Close