বাংলাদেশের ব্যাংকিং খাতই সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে

WBবাংলাদেশের ঝুঁকির ক্ষেত্রে এই মুহূর্তে ব্যাংকিং খাতই সবচেয়ে বেশি উদ্বেগের বলে মন্তব্য করেছে বিশ্বব্যাংক। এই খাতের দুর্নীতি দমনে এবং ঝুঁকি ব্যবস্থাপনায় উদ্যোগ নিতে হবে। এ জন্য ব্যাংক খাতে তদারকি বাড়াতে হবে। আবার ঋণ আদায়ে আইনগত ও আর্থিক কাঠামোর উন্নতি করতে হবে।
সোমবার আগারগাঁওয়ে বিশ্বব্যাংক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে সংস্থাটির মুখ্য অর্থনীতিবিদ জাহিদ হোসেন অর্থনীতির হালনাগাদ পরিস্থিতি তুলে ধরে এসব কথা বলেন।
তিনি বলেন, রাষ্ট্র মালিকানাধীন ব্যাংকে তারল্য সংকট না থাকলেও খেলাপি ঋণ অনেক বেশি। আবার বেশ কিছু বেসরকারি ব্যাংকে তারল্য সংকট আছে।
ড. জাহিদ হোসেন আরো বলেন, বাংলাদেশের জন্য এখন প্রটেনশিয়াল প্রবৃদ্ধি হলো ৬.৫ থেকে ৬.৬ শতাংশ। জিডিপির অনুপাতে ব্যক্তি বিনিয়োগ স্থবির। উৎপাদন খাতে ১৩.২ শতাংশ বলা হচ্ছে, কিন্তু এটা কোথা থেকে এলো। সেটা ভাবনার বিষয়। উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধির জন্য একটা কারন থাকতে হবে। সে ধরনের কোনো কিছু দেখছি না।
তিনি আরো বলেন, যারা ৭ শতাংশ প্রবৃদ্ধি করেছে তারা হয় রফতানি বা বিনিয়োগ বৃদ্ধির মাধ্যমে করেছে। আবার কেউ উভয়ের মাধ্যমে। কিন্তু বাংলাদেশ রফতানি ও বিনিয়োগ ছাড়া কিভাবে করলো এমন প্রশ্নও করেন বিশ্বব্যাংকের মূখ্য এই অর্থনীতিবিদ। -পার্স টুডে

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Close