‘নারীদের দুর্ভোগের প্রতি বিশ্বের নীরবতা নিন্দনীয়’

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান বলেছেন, এটা একটি ভন্ডামী যে বিশ্ব নিষ্পৃহ বিবেকবোধ নিয়ে ৮ মার্চ আন্তর্জাতিক নারী দিবস উদযাপন করছে। বিশ্বব্যাপী নারীদের ওপর পরিচালিত নিপীড়ন, হত্যা ও তাদের দুর্ভোগ সত্বেও আন্তর্জাতিক নারী দিবস উদযাপন হচ্ছে ‘ভন্ডামী’। তুরস্কের ‘হিরো উইম্যান’ (বীর নারীগণ) শীর্ষক অনুষ্ঠানে ভাষণ দিতে গিয়ে তুর্কী প্রেসিডেন্ট একথাগুলো বলেন। তিনি বলেন, এটা হচ্ছে ভন্ডামী যে, বিশ্ব তার কঠিন নির্বিকার বিবেকবোধ নিয়ে ৮ মার্চ আন্তর্জাতিক নারী দিবস পালন করছে।
তুরস্কের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় সীমান্ত পাড়ি দিয়ে গ্রীসে আশ্রয় সন্ধানীদের প্রতি গ্রীসের সাম্প্রতিক আচরণের তীব্র সমালোচনা করে তিনি বক্তব্য রাখেন। তিনি বলেন, গ্রীসের এ ধরনের কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে কেউ প্রতিবাদ করছে না।
কেউ তুরস্ক-গ্রীস সীমান্তে আশ্রয়প্রার্থী নারীদের ওপর নির্যাতনের প্রতিবাদ করছেন না, এমনকি যখন তাদের মারধর এমনকি গুলি করা হচ্ছে।
এরদোগান আরো বলেন, তিনি আগামী সোমবার তুরস্ক-গ্রীস সীমান্তে আশ্রয়প্রার্থীদের অবস্থা নিয়ে আলোচনার জন্য বেলজিয়ামে ইইউ কর্মকর্তাদের সাথে বৈঠকে বসবেন। তিনি বলেন, সিরিয়ায় সকল নারী ও শিশুরা মৃত্যুর মুখে থাকা সত্বেও, এ বিষয় যথাযথ মনোযোগ আকর্ষনে ব্যর্থ হয়েছে। যুদ্ধে ক্ষতবিক্ষত সিরীয় ভূখন্ডে ‘আগ্রাসন চালানো কিংবা তা তুরস্কের সাথে সংযুক্ত করার’ কোন লক্ষ্য কখনো ছিলো না তুরস্কের। এরদোগান এই মর্মে নিশ্চয়তা প্রদান করেন যে, তুরস্ক সিরীয়ায় সমস্যার সকল সমাধান গ্রহণ করবে, যা ইদলিব প্রদেশের জনগণের পাশাপাশি তুরস্কের সীমান্তগুলোর সুরক্ষা প্রদান করবে।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Back to top button
Close