নিষেধাজ্ঞার প্রভাব কাটিয়ে উঠছে কাতার

২০১৭ সালের ৫ জুন সন্ত্রাসবাদে অর্থায়ন ও মধ্যপ্রাচ্যে সউদী আরবের অন্যতম প্রতিদ্বন্দ্বী ইরানকে সমর্থনের অভিযোগ এনে কাতারের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করে সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত, বাহরাইন ও মিসর। একই সঙ্গে কাতারের সঙ্গে বাণিজ্যিক সম্পর্ক ছিন্ন এবং স্থল, আকাশ ও সমুদ্রপথ বন্ধ করে দেয় সউদী নেতৃত্বাধীন জোট।

সউদী জোটের আরোপিত নিষেধাজ্ঞার ব্যাপারে দেশটির শুরা কাউন্সিলের ৪৮তম অধিবেশনে কাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল থানি দেশটির অর্থনৈতিক অর্জনের রূপরেখা তুলে ধরেন। কাতারের আমির বলেন, খাদ্য নিরাপত্তা, নবায়নযোগ্য জ্বালানি খাতের উন্নয়নের পাশাপাশি অর্থনৈতিক বৈচিত্রতা আনার জন্য কাজ করছে কাতার।

তিনি আরও বলেন, কাতার পারস্পরিক শ্রদ্ধাবোধ এবং অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ না করার নৈতিকতার ওপর ভিত্তি করে যে কোনো ধরনের মতপার্থক্য দূর করতে সর্বদা প্রস্তুত। সেই সাথে অবরোধের প্রতিবন্ধকতা অতিক্রম করার পাশাপাশি আমরা কাতারের জাতীয় ভিশন:২০৩০ অর্জনের কাছাকাছি পৌঁছেছি। মঙ্গলবার দেশটির সরকারি টেলিভিশনে দেয়া ভাষণে এসব কথা বলেন কাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল থানি।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Back to top button
Close