মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আসন্ন ৩ নভেম্বরের নির্বাচন

সকল জরিপেই এগিয়ে বাইডেন

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আসন্ন ৩ নভেম্বরের নির্বাচনকে কেন্দ্র করে হওয়া সকল জরিপেই ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেনের জয়ের আভাস পাওয়া যাচ্ছে। আলাদাভাবে বড় বড় ইস্যুতে ট্রাম্পের চেয়ে বাইডেনের অবস্থানের পক্ষ নিচ্ছেন মার্কিন ভোটাররা। কে প্রেসিডেন্ট হচ্ছেন তা আগামী ৩ নভেম্বরের আগে নিশ্চিত করে বলা না গেলেও বিভিন্ন জরিপের ফল, আগাম ভোট ও নির্বাচনী তহবিলে বিপুল পরিমাণ অর্থ, ডেমোক্র্যাট শিবিরের কর্মকর্তাদের স্বস্তি দিচ্ছে। তবে নেট সিলভারের ফাইভথার্টিএইট ডটকম ব্লগ বাইডেনের জয়ের সম্ভাবনা দেখছে ৮৭ শতাংশ। অন্যদিকে ডিসিশন ডেস্ক এইচকিউ বলছে, এ সম্ভাবনা ৮৩.৫ শতাংশ।

২০২০ সালের ডেমোক্র্যাট প্রাইমারি জো বাইডেনকে শক্ত অবস্থানে নিয়ে এসেছে। তিনি শেষ মুহূর্তে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের টিকিট পেয়েছেন তাই নয়, তিনি অর্জন করেছেন শ্বেতাঙ্গ ভোটারদের আস্থা। এর বাইরে তিনি ভোট পেয়েছেন সেসব ভোটারেরও, যারা কলেজ পাস করেননি। ২০১৬ সালের নির্বাচনে এ ধরনের ভোটাররাই ট্রাম্পকে প্রেসিডেন্ট বানিয়েছিলেন।
সিনে কলেজ পোলের জরিপে বলা হয়েছে, জো বাইডেন ৫০ শতাংশ ভোট পাবেন আর ডোনাল্ড ট্রাম্প পাবেন ৪১ শতাংশ। ৩ শতাংশ ভোট দুই র্র্প্রার্থীর মধ্যে ভাগাভাগি হয়ে যাবে। গুরুত্বপূর্ণ রাজ্যগুলোতে ট্রাম্পকে ৫৬ শতাংশ নারী ভোটার প্রত্যাখ্যান করেছেন। সাদা ভোটারদের ৫৩ শতাংশ যাদের কলেজের ডিগ্রি রয়েছে তারা বলছেন, ট্রাম্প ভালো প্রেসিডেন্ট নন।
পোলস্টারের জরিপে বলা হয়, ট্রাম্পের বিজয়ে মুখ্য ভূমিকা রেখেছিল উইসকনসিন, পেনসেলভেনিয়া ও মিশিগান। জরিপ বলছে, এ ৩ রাজ্যে এগিয়ে আছেন বাইডেন। ওহিও আর আইওয়ার মতো রিপাবলিকান রাজ্যেও তিনি বর্তমান প্রেসিডেন্টের কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে চলছেন। এ ২ রাজ্যে ২০১৬ সালে অতি সহজ জয় হয়েছিল ট্রাম্পের। কলেজে পড়া ৫৫ শতাংশের বেশি শ্বেতাঙ্গ ভোটারেরও সমর্থন আছে বাইডেনের। এর বাইরে ৫ ভাগের ৪ ভাগ আফ্রিকান-আমেরিকান তাকেই সমর্থন করেন।
ফক্সের জরিপে বলা হয়, ২০১৬ সালে ক্লিনটনের বিজয় করা ২০ রাজ্য যদি বাইডেন ধরে রাখতে সক্ষম হন ও পেনসেলভেনিয়া, উইসকনসিন ও মিশিগান পুনরুদ্ধার করেন, সান বেল্প অথবা ওহিও বা আইওয়াতে জিততে না পারলেও তিনিই হবেন পরবর্তী মার্কিন প্রেসিডেন্ট। ২০১৬ সালে ডেমোক্র্যাটদের স্তব্ধ করে মিশিগান, উইসকনসিন ও পেনসেলভেনিয়াতে বিজয় পান ট্রাম্প।
ডেমোক্র্যাটরা এবার নির্বাচনী প্রচারাভিযানে বিপুল পরিমাণ চাঁদা তুলেছে। আর্থিক দিক দিয়ে সুবিধাজনকে অবস্থায় থাকায় ভোটের ঠিক আগের সপ্তাহগুলোয় বাইডেন তার প্রচারণা ও বার্তা দিয়ে রেডিও-টিভি ছেয়ে ফেলতে পারবেন।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Back to top button
Close