সদর দক্ষিণ নাগরিক কমিটি

‘দক্ষিণ সুরমা’র সব ইউনিয়নকে সিটি কর্পোরেশনে অন্তর্ভুক্ত করুন’

সিলেট সদর দক্ষিণ এলাকার ন্যায়সংগত দাবি আদায় ও সুষম উন্নয়ন ত্বরান্বিত করার লক্ষ্যে গঠিত অরাজনৈতিক সংগঠন ‘সদর দক্ষিণ নাগরিক কমিটি সিলেট, জেলা প্রশাসন কর্তৃক গত ৯ আগস্ট জারিকৃত গণবিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে দক্ষিণ সুরমা উপজেলার কিছু অংশ সিলেট সিটি কর্পোরেশনে অন্তর্ভুক্তির প্রস্তাবকে স্বাগত জানিয়েছে।

গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সংগঠনের সর্বোচ্চ নীতি-নির্ধারণী ফোরাম স্টিয়ারিং কমিটির সভার প্রস্তাবে এ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করা হয়। প্রস্তাবে আরো বলা হয়, তবে জেলা প্রশাসনের এ সংযুক্তি প্রস্তাবকে আমরা স্বাগত জানালেও বাস্তবে এ প্রস্তাবনা জনপ্রত্যাশা পূরণে ব্যর্থ হয়েছে। আমরা এ প্রস্তাবনাকে সংশোধন করে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ (এসএমপি’)’র আওতাধীন দক্ষিণ সুরমা উপজেলার অন্তর্গত ১০টি ইউনিয়নকে সিলেট সিটি কর্পোরেশনে সংযুক্তির জোর দাবি জানানো হয়।
প্রস্তাবে বলা হয়, বর্তমান সরকার স্থানীয় সরকারকে শক্তিশালী কাঠামোর উপর দাঁড় করে নিজস্ব রাজস্ব আহরণের মাধ্যমে স্বনির্ভরভাবে গড়ে তুলতে দেশকে নগরায়নে বদ্ধপরিকর। কিন্তু জেলা প্রশাসনের জারিকৃত এ গণবিজ্ঞপ্তি সরকারের নীতি-নির্ধারণী মহলের চিন্তা-চেতনার সাথে মানানসই নয়। এছাড়া, যেখানে আমাদের গোটা দক্ষিণ সুরমার ১০টি ইউনিয়ন-ই মোটামুটি শহরতলীর সকল সুযোগ-সুবিধা ভোগ করছে। তাই, খন্ডিতভাবে এই সংযুক্তি প্রক্রিয়া না করে বরং গোটা দক্ষিণ সুরমা তথা সদর দক্ষিণ এলাকাকে সিটি কর্পোরেশনে সংযুক্ত করলে রাজস্ব প্রাপ্তিতে সরকারের কাঙ্খিত চাহিদা পূরণ সহজতর হবে। পাশাপাশি সুষম উন্নয়ন ত্বরান্বিত হলে এলাকাবাসীও এর সুফল ভোগ করতে পারবে। আমরা জেলা প্রশাসনসহ সরকারের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় বা কর্তৃপক্ষকে দক্ষিণ সুরমা উপজেলার ১০টি ইউনিয়নকে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের সংযুক্তি বিষয়ে বিশেষ দৃষ্টি প্রদানের জন্য জোর দাবি জানাচ্ছি।
প্রস্তাবে ‘সদর দক্ষিণ নাগরিক কমিটি, সিলেট’র পক্ষ থেকে এ বিষয়ে জেলা প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণের জন্য আগামী মঙ্গলবার সকাল ১১টায় জেলা প্রশাসক বরাবরে স্মারকলিপি প্রদানের কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়। এতে নাগরিক কমিটি সংশ্লিষ্ট সকলকে উপস্থিত থাকার জন্য অনুরোধ জানানো হয়। সামাজিক স্বাস্থ্য বিধি অনুসরণ করে এ স্মারকলিপি পেশ করা হবে।
নাগরিক কমিটির সভাপতি মোল্লারগাঁও ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব শেখ মোঃ মকন মিয়া’র সভাপতিত্বে এবং সহ-সাধারণ সম্পাদক গোলাম হাদী ছয়ফুলের পরিচালনায় এতে বক্তব্য রাখেন স্টিয়ারিং কমিটির সদস্য উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মোঃ সাইফুল আলম, আলহাজ্ব মোঃ গোলাম হাফিজ লোহিত, চঞ্চল মাহমুদ ফুলর, আলহাজ্ব মোঃ আব্দুল আহাদ, আবদুল মালেক তালুকদার, জাহাঙ্গীর খান, শেখ মোঃ লায়েক মিয়া, নজরুল হোসেন, নুরুল ইসলাম সুমন, লাহিন আহমদ রুয়েল, খন্দকার মহসিন কামরান, আমন্ত্রিত হিসেবে আব্দুল ওয়াহিদ, সাহাদ উদ্দিন দুলাল, হাজী জয়নাল আহমদ, সোহেল রানা প্রমুখ।
সভার শোক প্রস্তাবে সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির দফতর সম্পাদক মোঃ ছয়েফ খানের বড় ভাই বিশিষ্ট সমাজসেবী ও ব্যবসায়ী মোঃ কয়েছ খানের আকস্মিক মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করা হয়। মরহুমের রুহের মাগফেরাত কামনা করে শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতিও সমবেদনা জ্ঞাপন করা হয়। -বিজ্ঞপ্তি

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Back to top button
Close