নজিরবিহীন দাবানলে পুড়ছে যুক্তরাষ্ট্র, তাৎক্ষণিক ঘর ছাড়ার নির্দেশ

তীব্র বাতাস এবং উষ্ণ আবহাওয়ার কারণে দাবানল ছড়িয়ে পড়েছে যুক্তরাষ্ট্রের পশ্চিমাঞ্চলীয় বেশিরভাগ এলাকাতে। সেখানে আগুনের মাত্রা ও ভয়াবহতাকে নজিরবিহীন বলে উল্লখ করেছে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ। জীবন বাঁচাতে মুহূর্তের মধ্যেই ঘর ছাড়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে বাসিন্দাদের।
আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে দাবানল ছড়িয়ে পড়েছে ওরেগন এবং ওয়াশিংটন অঙ্গরাজ্যের বিশাল এলাকাজুড়ে। ঘণ্টায় ৮০ কিলোমিটার বেগে বয়ে চলা বাতাসে কারণে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে আগুন।
ওরেগনের গভর্নর কেট ব্রাউন বুধবার জানিয়েছেন, অঙ্গরাজ্যটির ডেট্রয়েট, ব্লু রিভার, ভিডা, ফিনিক্স ও ট্যালেন্ট শহরে তাণ্ডব চালাচ্ছে ভয়াবহ দাবানল। এছাড়া, মেডফোর্ড শহরের বেশিরভাগ বাসিন্দাকেই বাধ্য হয়ে সরিয়ে নেয়া হয়েছে। এবারের দাবানলে ওরেগনের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু ও সম্পদহানি হতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন গভর্নর ব্রাউন।
ওরেগনের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, নিয়ন্ত্রণহীন আগুনের কারণে দমকলকর্মীদের ফিরিয়ে আনা হয়েছে। এছাড়া, প্রাণরক্ষার্থে সেখানকার বাসিন্দাদের নির্দেশ পাওয়া মাত্র ঘর ছাড়তে বলা হয়েছে।
ইতোমধ্যেই ওরেগনের অন্তত সাতটি কাউন্টিতে ছড়িয়ে পড়েছে দাবানল। পোর্টল্যান্ড থেকে কয়েক মাইল দূরের গ্রাম এবং শহরতলিগুলোতেও বাসিন্দাদের ঘর ছাড়ার জন্য প্রস্তুত থাকতে বলা হয়েছে। সতর্কতাস্বরূপ গত মঙ্গলবারই খালি করে দেয়া হয়েছে তিনটি কারাগার।
যুক্তরাষ্ট্রের পশ্চিমাঞ্চল জুড়ে ১০০টির বেশি জায়গায় জ্বলছে দাবানলের আগুন। এর মধ্যে শুধু ক্যালিফোর্নিয়াতেই রয়েছে ২৮টি। সেখানে ইতোমধ্যেই ৯ লাখ ৩০ হাজার হেক্টরের বেশি ভূমি পুড়ে গেছে। এতে বুধবার পর্যন্ত অন্তত তিনজন প্রাণ হারিয়েছেন। বিশালাকার ধোঁয়ার কুণ্ডলীতে ছেয়ে গেছে অঙ্গরাজ্যটির বেশিরভাগ এলাকা।
এর আরও উত্তরে ওয়াশিংটনে মাত্র ২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে ১ লাখ ৩৩ হাজার হেক্টরের বেশি ভূমি আগুনের কবলে পড়েছে, যা অন্যান্য সময়ে দাবানলের গোটা মৌসুমে ক্ষতিগ্রস্ত ভূমির সমান। অঙ্গরাজ্যটিতে দাবানলের আগুনে এক বছরের একটি শিশু প্রাণ হারিয়েছে এবং তার বাবা-মা গুরুতরভাবে দগ্ধ হয়েছেন বলে জানিয়েছে স্থানীয় পুলিশ।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Back to top button
Close