সিলেটের উন্নয়নে হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ

সিটি করপোরেশনের জন্মের পর থেকে সিলেটের উন্নয়নে এটাই সর্বোচ্চ বরাদ্দ

সিলেট নগরীর উন্নয়নে হাজার কোটি টাকার প্রকল্প পাস করেছে সরকার। সিটি করপোরেশনের জন্মের পর থেকে সিলেটের উন্নয়নে এটাই সর্বোচ্চ বরাদ্দ। প্রকল্প পাস হওয়ায় খুশি সিলেটের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। আর পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়েছেন, সিলেটের উন্নয়নে এ ধরনের একটি প্রকল্পের গুরুত্ব অনেক। এ কারণে সরকার প্রধান সিলেটের উন্নয়নে হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছেন। জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় এ প্রকল্প পাস করা হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে আজ মঙ্গলবার শেরেবাংলা নগরে এনইসি সম্মেলন কক্ষে একনেকের সভা হয়। ‘সিলেট সিটি করপোরেশনের জলাবদ্ধতা নিরসন, বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ ও অবকাঠামো নির্মাণ’ শীর্ষক প্রকল্পে ব্যয় হবে এক হাজার ২২৮ কোটি টাকা।

প্রকল্প পাস হওয়ার পর সিলেটে সফররত পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন জানিয়েছেন, সিলেটের উন্নয়নে ১ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। সিলেটকে একটি আধুনিক নগরী হিসেবে গড়তে নেয়া হয়েছে নানা ধরনের পদক্ষেপ। ঝামেলা মুক্ত ও উন্নত সিলেট গড়তেও পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে। এতে সিটি করপোরেশনেরও নিজস্ব বরাদ্দ থাকবে। তিনি বলেন, সিলেট নগরীর উন্নয়নে অতীতে সাবেক অর্থমন্ত্রী অনেক কাজ করেছেন। এখন নতুন করে কাজ শুরু হবে। আর এতে করে সিলেটের উন্নয়ন আরো ত্বরান্বিত হবে বলে মন্তব্য করেন মন্ত্রী।
এদিকে প্রকল্প পাসের খবরে খুশি সিলেটের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। আজ বিকালে তিনি নগর ভবনে এ নিয়ে প্রেস ব্রিফিং করেন। এ সময় সিলেটের এই বৃহৎ প্রকল্পটি পাস হওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেনকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন সিসিক মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। মেয়র আরিফ বলেন, ‘সিলেট সিটি করপোরেশনের ইতিহাসে এত বড় প্রকল্প এর আগে অনুমোদন পায়নি। একনেকে এই প্রকল্প পাসের জন্য সিলেট নগরবাসীর পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেনকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। একই সঙ্গে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম, পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান ও সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতকেও ধন্যবাদ জানাচ্ছি।’ আরিফ বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী সিলেটের উন্নয়নের ব্যাপারে সব সময়ই সচেষ্ট। সিলেট নগরীর উন্নয়নে আমরা যে প্রকল্প প্রস্তাবনা পাঠিয়েছিলাম, তা কোনো কাটছাঁট না করেই পাস করেছেন তিনি।’ এক হাজার ২২৮ কোটি টাকা ব্যয়ে সিলেট নগরীর জলাবদ্ধতা নিরসন ও বিশুদ্ধ পানির সরবরাহ নিশ্চিত করা এবং অবকাঠামো নির্মাণ করা হবে বলে জানান মেয়র। সংবাদ সম্মেলনে আরিফ বলেন, ‘আমরা সততা, নিষ্ঠা ও দৃঢ়তার সঙ্গে প্রকল্প বাস্তবায়ন করবো।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Back to top button
Close