ন্যাটো জোট কার্যত মৃত: ফরাসি প্রেসিডেন্ট

পশ্চিমা সামরিক জোট ন্যাটো এখন মৃত বলে মন্তব্য করলেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁ। তিনি বলেন, “বর্তমানে আমরা যা দেখছি তাতে আসলে ন্যাটো ‘কার্যত নিস্ক্রিয় বা মৃত’ বলেই মনে হচ্ছে।’’
১৯৪৯ সালের ৪ এপ্রিল প্রতিষ্ঠিত হয় উত্তর আটলান্টিক নিরাপত্তা জোট বা ন্যাটো। এটি একটি আঞ্চলিক সামরিক সহযোগিতার জোট। আটলান্টিক মহাসাগরের দুই পাড়ে অবস্থিত উত্তর আমেরিকার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডা এবং ইউরোপের অধিকাংশ দেশ এই জোটের সদস্য।
ইকোনমিস্টকে দেওয়া সাক্ষাতকারে ম্যাক্রোঁ বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের ব্যর্থতায় ন্যাটোর এই দশা। সিরিয়া থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের আগে ন্যাটের সঙ্গে আলোচনা না করায় ট্রাম্পের সমালোচনা করেন তিনি। ম্যাক্রোঁ প্রশ্ন তোলেন, ন্যাটো কি এখনও প্রতিরক্ষায় প্রতিশ্রæতি কি না।
তবে ম্যাক্রোঁর এই মন্তব্যের সমালোচনা করেছেন জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা ম্যার্কেল। তিনি বলেন, ‘ম্যাক্রোঁর মন্তব্যের সঙ্গে একমত নন তিনি।
অন্যদিকে রুশ প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিন ম্যাক্রোঁর বক্তব্যকে স্বাগত জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, ম্যাক্রোঁ সত্য কথা বলেছেন।
যুক্তরাজ্যভিত্তিক ম্যাগাজিন ইকোনোমিস্টকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ন্যাটোর প্রতি যুক্তরাষ্ট্র তাদের দায়বদ্ধতা কমিয়ে ফেলেছে। সিরিয়া থেকে সেনা প্রত্যাহারের আগে ন্যাটোর সঙ্গে পরামর্শ করতে ব্যর্থ হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।
ম্যাক্রো আরও বলেন, সমন্বিত প্রতিরক্ষাব্যবস্থায় ন্যাটো সদস্যগুলোর দায়বদ্ধতা আছে কিনা তা নিয়ে সন্দেহ আছে। আমরা যা দেখছি তা হলো ন্যাটোর কার্যত মৃত্যু ঘটেছে। কারণ জোট রক্ষায় যুক্তরাষ্ট্রের ওপর আর নির্ভর করতে পারছে না ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের দেশগুলো। এ মুহূর্তে ন্যাটোতে যুক্তরাষ্ট্রের দায়বদ্ধতা নিয়ে আমাদের আলোচনা করা উচিত।
প্রসঙ্গত স্নায়ুযুদ্ধের সময় যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বে ন্যাটো গঠিত হয়েছিল। এই সংস্থার অনুচ্ছেদ ৫ অনুযায়ী, জোটের যে কোনো সদস্যের ওপর কোনো আক্রমণের সমন্বিত জবাব দেওয়ার কথা রয়েছে। তবে এটি এখন অনেকটাই অকার্যকর।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Back to top button
Close