অলিম্পিক আর রাগবি বিশ্বকাপের পর এবার ইংল্যান্ড ক্রিকেট বিশ্বকাপে জামান

মানুষের স্বপ্ন থাকে আর যখন স্বপ্নটি হয় যদি একটু ব্যতিক্রম বিশ্ব ক্রীড়াঙ্গনে প্রতিনিধিত্ব করা। আর সেই স্বপ্নটি এবার পূরণ হয়েছে এমএফএ জামানের। লন্ডন অলিম্পিক ২০১২আর রাগবি বিশ্বকাপ ইংল্যান্ড ২০১৫ এর পর তিনি ক্রিকেট বিশ্বের সবচেয়ে বড় আর মর্যাদাপূর্ণ আসর আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯ এর ওর্য়াল্ডকাপ ক্রিকেটিয়ারসে অংশগ্রহণ করছেন। এছাড়া জামান আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপের সিলেক্টর প্যানেলে নির্বাচক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। ২০ বছর পর ইংল্যান্ড এবং ওয়েলসে ৬ সপ্তাহব্যাপী ১১টি মাঠে ১০টি দলের ৪৮ টি ম্যাচ নিয়ে অনুষ্টিত বিশ্বকাপ টুর্নামেন্টকে সবচেয়ে সাফল্যমন্ডিত করে তুলতে ৪০০০ ভলান্টিয়ার অংশগ্রহণ করবেন।
আর্ন্তজাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) এই বিশ্বকাপ উপলক্ষে একমাত্র এশিয়ান মুসলিম হিসেবে জামানের কাজের উপর বিশেষ প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে যা সারাবিশ্বের ভলান্টিয়ার জগতে বেশ আলোড়ন সৃষ্টি করেছে। ব্রিটিশ কমিউনিটিতে একজন স্বপ্রতিষ্ঠিত ব্যক্তি হিসেবে বিভিন্ন উন্নয়ন এবং সামাজিক কর্মকান্ডের সাথে জড়িত জামানের এই পথটা কখনোই তার জন্য মসৃণ ছিলোনা। জীবনসুনামির আঘাতে শেষ বিশ্বাস আর অবলম্বনটুকু হারিয়ে এক কঠিনমুহুর্তে তাকে বিলেতের রাস্তা আরপার্কে দিন-রাত গুণতে হয়েছে। তবুও তিনি দমে থাকেননি, এত বাধা কখনো তার স্বপ্নকে শেষ করে দিতে পারেনি। আজ তার এই চড়াই উৎরাই পেরোনো গল্প অন্যদেরকে উৎসাহিত করছে কিভাবে জীবনকে পরিবর্তন করে সাফল্যেরবন্দরে পৌছঁতেহয়।
জামান বলেন, হোম অফ ক্রিকেট ইংল্যান্ডে বিশ্বের সবচেয়ে মর্যাদাপূর্ণ আসরে অংশগ্রহণ করতে পেরে আমি সত্যিই গর্বিত। লন্ডন অলিম্পিক আর রাগবি বিশ্বকাপের পর এই ক্রিকেট টুর্নামেন্টে থাকতে পারা সত্যিই ভাগ্যের। এছাড়া বিশ্বকাপের সিলেক্টরপ্যানেলে একজন নির্বাচক হিসেবে দায়িত্ব পালন করাটা আরো বেশি সম্মানের। আমরা ইংল্যান্ড এবং বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে ৪০০০ ভলান্টিয়ার নির্বাচন করেছি শুধুমাত্র এই বিশ্বকাপকে সবচেয়ে সফল ইভেন্ট হিসেবে তুলে ধরতে। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ থেকে প্রায় ১.৫ মিলিয়ন ক্রিকেটভক্ত ইংল্যান্ডে আসবে শুধু খেলা দেখতে আর তার সাথে স্থানীয় ক্রিকেটপ্রেমী রয়েছেন যারা ১১ মাঠে ৪৮ টিম্যাচ দেখতে যাবেন। আর এজন্য আমাদের নিবেদিত ভলান্টিয়ার টিম থাকবে সব জায়গায় এই ইভেন্টকে সফল করে তুলতে।

আর আমি এই ক্রিকেট বিশ্বকাপের মাধ্যমে ভলান্টিয়ার সার্ভিসকে একটি অনন্য উচ্চতায় নিয়ে যেতে চেষ্টা করবো। আমরা অনেকে ভলান্টিয়ার কাজকে অবহেলা করি তাই এর সুযোগকে কাজে লাগাতে পারিনা। এজন্য পরিবার থেকে উৎসাহ দেয়া খুবই প্রয়োজন, কারণ পরিবারই সবকিছুর মূল, যেখান থেকে একজন মানুষের শুরু। এছাড়া আমাদের তরুণদেরকে আরো বেশি ভলান্টিয়ার কাজের সাথে সম্পৃক্ত হওয়া উচিত। কারণ এর মাধ্যমে তারা অনেক কিছু শিখতে পারবে যা তাদের ক্যারিয়ারকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে সাহায্য করবে।
দৈহিক এবং মানসিক সুস্থতার জন্য কাজ সবোর্ত্তম উপকরণ আর ভালো কাজ মানুষকে সবসময় খারাপ কাজ-চিন্তা থেকে দূরে রাখে। একজন মানুষের সাফল্যের নেপথ্যে রয়েছে এই সততা, সঠিক উদ্দেশ্য আর কর্মপ্রচেষ্টা। প্রায়ই আমরা জীবনের সফলতা-অর্জনকে টাকা-পয়সার মানদন্ডে বিচার করি। কিন্তু একজন ভালোমানুষ হতে পারাটা জীবনের সবচেয়ে বড় সাফল্য। আরভলান্টিয়ার কাজের মাধ্যমে মানুষ এটা অর্জন করতে পারবে।
লন্ডন অলিম্পিক থেকে শুরু করে বিশ্বকাপ ক্রিকেট, এই দীর্ঘ কর্দমাক্ত পথ পাড়ি দিয়ে আসাটা আমার জন্য অনেক অনেক কঠিন ছিলো। আমার বিশ্বাস, ইচ্ছাশক্তি, পরিশ্রম আর কিছু বিশেষ ব্যক্তিদের অনুপ্রেরণা আমাকে সববাধা-বিপত্তি মোকাবেলা করে আজ এই অবস্থানে নিয়ে এসেছে। আর আমার চ্যালেঞ্জিং যাত্রাটা হয়তো অনেককে উৎসাহিত করবে জীবনের মোড়টা ঘোরাতে ।
ইংলিশ ক্রিকেট বোর্ডের একজন ক্রিকেট আম্পায়ার হিসেবে জামান বিলেতের ক্রীড়া ক্ষেত্রে বিশেষ অবদান রেখে আসছেন। ব্রিটিশ কমিউনিটিতে এক অনন্য যোগসূত্র স্থাপনে অবদানের জন্য তিনি দ্যা লন্ডন ফেইথ এন্ড বিলিফ ফোরাম এর ইনস্পারেশনাল ২০১৮ এওয়ার্ড, দ্যা মুসলিম নিউজ আল-বিরুণী ২০১৮ এওয়ার্ড এবং ২০১৪ সালে আন্তর্জাতিক চ্যারিটি সংস্থা মুসলিম এইডের সেরা ভলান্টিয়ার নির্বাচিত হন। এছাড়া ২০১৭ সালের দ্যা ক্যালাডরেল কমিউনিটি স্পিরিট অব দ্যা ইয়ার এওয়ার্ডের জন্য মনোনীত হয়েছেন। তিনি পঙ্গু শিশুদের সাহাযার্থে ফান্ডরাইজিংয়ের জন্য লন্ডন ম্যারাথনসহ বিভিন্ন ম্যারাথন দৌড়ে অংশগ্রহণ করেন। ২০১৭ সালের রমজানমাসে তিনি জো কক্স এমপিফাউন্ডেশন এন্ড ইডেনপ্রজেক্টের এম্বেসেডর হিসেবে ৬১৬ মাইল পায়ে হেটে ইয়র্কশায়ার থেকে লন্ডন আসেন। সেইফ এন্ড সেইভ এর ফাউন্ডার জামান ভলান্টিয়ার সেন্টার লুইসামের একজন ট্রাস্টি এবং ভাইস চেয়ারম্যান হিসেবে ৩ বছর যাবৎ দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি টিমলন্ডন, নিউহাম ক্রিকেট ক্লাব, ইউনিভার্সেলপিস ফেডারেশন, নিয়ার নেইবার্স, মেট্রোপলিটন এসেক্স ক্রিকেট এসোসিয়েশন এবং বারটস হেলথ এনএইচএস ট্রাস্টের একজন সদস্য। এছাড়া তিনি প্রথম বাঙালিহিসেবে বিবিসি দ্যা ওয়ান শো তে রমজান মাসে কমিউনিটিতে কাজ করার বিশেষ অবদান হিসেবে আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত হন; যেখানে অতিতে ব্রিটেন এবং বিশ্বের বিভিন্ন দেশের রাজনীতিবিদ, খেলোয়াড়, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব অতিথি হিসেবে উপস্থিত হয়েছেন।
আইসিসি ক্রিকেট ওর্য়াল্ডকাপে এমএফএ জামানের প্রতিবেদনের লিংক: https://www.cricketworldcup.com/news/en/1082418

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Close