প্রাইম মিনিস্টারের কাছে মেয়র জন বিগসের চিঠি

ফেয়ার ফান্ডিং ফর্মূলা বাস্তবায়িত হলে সংকট আরো বাড়বে

সরকারের তথাকথিত ‘‘ফেয়ার ফান্ডিং’’ কে রিভিউ করার আহ্বান জানিয়ে প্রাইম মিনিষ্টার থেরেসা মে কে চিঠি দিয়েছেন টাওয়ার হ্যামলেটসের নির্বাহী মেয়র জন বিগস। মেয়রের মতে এই ‘‘ফেয়ার ফান্ডিং’’ ফর্মূলা বাস্তবায়িত হলে টাওয়ার হ্যামলেটসের মতো দরিদ্র্য এলাকার মিলিয়ন মিলিয়ন পাউন্ড অপেক্ষাকৃত ধনাঢ্য (শায়ার) এলাকায় চলে যাবে।

উল্লেখ্য যে ‘‘ফেয়ার ফান্ডিং’’ হচ্ছে কাউন্সিলগুলোর জন্য সরকারের নতুন ফান্ডিং ফর্মূলা। ২০২০/২০২১ আর্থিক বছর থেকে বর্তমান টোরী সরকার এটি কার্যকর করার উদ্যোগ নিয়েছে। ডিসেম্বর ২০১৮ থেকে ফেব্রুয়ারী ২০১৯ সালের মধ্যে পরিচালিত এসংক্রান্ত কনসালটেশনের ফলাফল এবং এবিষয়ে সরকারের মতামত শিঘ্রই প্রকাশিত হবে।

প্রাইমমিনিস্টারের কাছে লিখিত চিঠিতে মেয়র জন বিগস উচ্চচ জনসংখ্যা এবং দরিদ্র্য অঞ্চল থেকে মনোযোগ সরিয়ে নেয়ার ফলে টাওয়ার হ্যামলেটসের মতো এলাকাগুলোতে কী প্রতিক্রিয়া হবে তা স্মরণ করিয়ে দেন। চিঠিতে মেয়র ২০১০ সালের পর টাওয়ার হ্যামলেটসের কোর ফান্ডিং ১৪৮ মিলিয়ন পাউন্ড (৬৪%) যে কমে গেছে তাও উল্লেখ করেন। লোকাল গর্ভনমেন্ট ক্রোনিক্যাল এর হিসাব মতে ‘‘ফেয়ার ফান্ডিং’’ ফর্মূলা বাস্তবায়িত হলে অর্ধ বিলিয়নেরও বেশী অর্থ লন্ডনের বারাগুলো থেকে শায়ারগুলোতে চলে যাবে।

এছাড়া প্রাইসওয়াটারহাউসকুপারস এর পরিসংখ্যান মতে আগামী ৬ বছরের মধ্যে কাউন্টি কাউন্সিগুলো ৫০ বিলিয়ন পাউন্ড ফান্ডিং ব্ল্যাকহোলের মধ্যে পড়বে এবং এর ফলে উল্লেখযোগ্য পরিমানের লোকাল সার্ভিস হারিয়ে যাবে। বাসিন্দাদের বেসিক সার্ভিস দেয়া ছাড়া তাদের সামনে আর কোন উপায় থাকবে না।

এব্যাপারে টাওয়ার হ্যামলেটসের মেয়র জন বিগস তার প্রতিক্রিয়ায় বলেন, গত প্রায় এক যুগ ধরে ক্রমাগত বাজেট কাটের পরও আমরা বহু ফন্ট লাইন সার্ভিস যেমন লাইব্রেরি, আইডিয়া স্টোর, লেইজার সেন্টার, চিলন্ড্রেন সেন্টার ইত্যাদি খোলা রাখতে পেরেছি। তবে সরকারের সাম্প্রতিক ফেয়ার ফান্ডিং ফর্মূলা আমাদেরকে উদ্বিগ্ন করে তুলেছে। আমাদের ভূবন ক্রমেই ছোট হয়ে আসছে।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী দাবী করেন যে ব্যায় সংকোচন শেষ হয়ে গেছে। কিন্তু টাওয়ার হ্যামলেটসের মতো বারাগুলো থেকে ধনাঢ্য শায়ারগুলোতে মিলিয়ন মিলিয়ন পাউন্ড চলে যাবার সংকেত অন্য বার্তা বহন করে।

কেবিনেট মেম্বার ফর রিসোর্সেস কাউন্সিলার ক্যান্ডিডা রোনান্ড বলেন, দরিদ্র এলাকার সমস্যাকে নোটিস না করাটা হবে সরকারের মারাত্মক ভুল। এটি বাস্তবায়িত হলে টাওয়ার হ্যামলেটসের মতো দরিদ্র্য এলাকাগুলোকে আরো একদফা সমস্যায় ফেলবে। বাজেট কাটের কারনে ইতিমধ্যে আমরা নানা সমস্যায় রয়েছি। সরকারের ফেয়ার ফান্ডিং ফর্মূলা আমাদের সমাজে মারাত্মক প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করবে।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Back to top button
Close