টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের জাতীয় পুরষ্কার অর্জন

টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের ‘‘ভায়োলেন্স এগেইনস্ট ওমেন এন্ড গার্লস’’ টিম সম্মানসূচক জাতীয় পদক অর্জন করেছে। গত ১৩ মার্চ লোকাল গভর্নমেন্ট ক্রোনিক্যালস (LGC) এওয়ার্ড সিরিমনিতে সারা দেশের মধ্যে টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের এই বিভাগ ‘‘টিম অফ দ্যা ইয়ার ২০১৯’’ এওয়ার্ড লাভ করে। এই নিয়ে টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিল টানা দ্বিতীয়বারের মতো এলজিসি এওয়ার্ড লাভ করলো। এর আগে ২০১৮ সালে কাউন্সিলের ‘‘সাবটেন্স এন্ড মিসইউজ’’ বিভাগ ‘‘টিম অফ দ্যা ইয়ার’’ এওয়ার্ড লাভ করেছিলো।

সেন্ট্রাল লন্ডনের গ্রসভেনর হোটেলে অনুষ্ঠিত এওয়ার্ড সিরিমনি অনুষ্ঠানে কাউন্সিলের পক্ষে টিমের সিনিয়র সদস্যদের সাথে নিয়ে এই এওয়ার্ড গ্রহন করেন নির্বাহী মেয়র জন বিগস, কাউন্সিলার আসমা বেগম এবং চীফ এক্সিকিউটিভ উইল টাকলি। ভিকটিমদের সাপোর্ট এন্ড প্রটেকশনের জন্য, দোষীদের শাস্তি প্রদানের লক্ষ্যে কমিউনিটি চ্যাম্পিয়ন এবং পার্টনারদের সাথে আন্তরিকতার সাথে কাজের জন্য, এসংক্রান্ত শিক্ষামূলক কার্যক্রম পরিচালনা ও সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য এবছর এই এওয়ার্ড দেয়া হয়।

এওয়ার্ড প্রাপ্তির পর মেয়র জন বিগস তার প্রতিক্রিয়ায় বলেন, নারী এবং বালিকা হওয়ার কারনে যারা সহিংসতার শিকার হন তাদের রক্ষা করা আমাদের কাছে খুবই গুরুত্বপূর্ন একটি কাজ। পাশাপাশি অসহিঞ্চু আচরন এবং বিভক্তি সৃষ্টিকারীদের বিতারনের জন্যও লড়াইটাও গুরুত্বপূর্ন। আর একাজে কাউন্সিলের সংশ্লিষ্ট টিম জাতীয়ভাবে স্বীকৃতি পাওয়ায় আমি আনন্দিত। তাদের এই গুরুত্বপূর্ন কাজ এজাতীয় অপরাধের শিকারদের জীবনে সত্যিকার অর্থেই পরিবর্তন এনেছে।

ডেপুটি মেয়র এবং কমিউনিটি সেইফটি বিষয়ক কেবিনেট মেম্বার কাউন্সিলার আসমা বেগম তার প্রতিক্রিয়ায় বলেন, এই টিমের এওয়ার্ড প্রাপ্তিতে আমি আনন্দিত। তারা হিংসা, সহিংসতা এবং ঘৃণাজনিত অপরাধ দমনে নিবিড়ভাবে কাজ করে যাচ্ছে। এসব অপরাধ দমনে এবং টাওয়ার হ্যামলেটসকে ‘‘নো প্লেস ফর হেইট’’ হিসাবে প্রতিষ্ঠার জন্য এটি খুবই গুরুত্বপূর্ন।

‘‘ভায়োলেন্স এগেইনস্ট ওমেন এন্ড গার্লস’’ টিম এর আগেও তার কাজের জন্য বিভিন্ন স্বীকৃতি লাভ করে। তারা ন্যাশনাল হেইট ক্রাইম এওয়ার্ড এবং চ্যারেটি সংস্থা হিয়ারের আপস্ট্যানডার এওয়ার্ড, লাভ করেছিলো।

উল্লেখ্য যে এলজিসি এওয়ার্ডে টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের আরো ৩টি বিভাগ ভালো কাজের জন্য আলোচিত হয়। বিভাগ ৩টি হচ্ছে বিজনেস ট্রান্সফরমেশন, লাভ ইওর নেইবারহুড ক্যাম্পেইন এবং টাওয়ার হ্যামলেটস হোমস।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Back to top button
Close