ভয়ঙ্কর শীতে কাঁপছে আমেরিকা

৭০ ডিগ্রি পর্যন্ত নীচে নামতে পারে তাপমাত্রা

ভয়ঙ্কর শীতে কাঁপছে গোটা আমেরিকা। হিমাঙ্কের প্রায় ৬০ ডিগ্রি নীচে বেশ কয়েকটি জায়গার তাপমাত্রা। মিনেসোটার আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, হিমাঙ্কের চেয়ে ৭০ ডিগ্রি পর্যন্ত নীচে নামতে পারে এই স্টেটের তাপমাত্রা। ১৮০০ সালের পর চলতি বছরই এরকম ঠান্ডা পড়েছে মিনেসোটায়।

প্রবল ঠান্ডায় মিনেসোটায় ইতিমধ্যে প্রাণ হারিয়েছেন এক ব্যক্তি। বাড়ি ছাড়তেও বাধ্য হয়েছেন অনেকেই। মিনেসোটায় তাপমাত্রা বর্তমানে মাইনাস ৪০ ডিগ্রির আশপাশে। এদিকে গানা গেছে, ম্যাডিসনে এমন শীত গত ৪০ বছরে পড়েনি। ম্যাডিসনে হিমাঙ্কের চেয়েও ২৮ ডিগ্রি নীচে রয়েছে বর্তমান তাপমাত্রা। আরেকটি মার্কিন স্টেট উইসকনসিনেরও প্রায় একই অবস্থা। তাপমাত্রা নেমে এসেছে মাইনাস ৩২ ডিগ্রির আশপাশে। এছাড়াও ইন্ডিয়ানা, ওহায়ো, ইলিনয়েসেও একই রকম তাপমাত্রা বিরাক করছে। বেশ কয়েকটি স্টেটে বন্ধ রাখা হয়েছে স্কুল-কলেজসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান।

ওয়াশিংটনে তাপমাত্রা হিমাঙ্কের প্রায় ৪ ডিগ্রি নীচে। শিকাগোতে বর্তমান তাপমাত্রা মাইনাস ২৩ ডিগ্রি, ডেট্রয়েটেও তা হিমাঙ্কের প্রায় ২৮ ডিগ্রি নীচে। নিউ ইয়র্ক গড় তাপমাত্রা শূ্ন্য ডিগ্রি। নায়াগ্রা, ওরলিয়ান্স কাউন্টি ও বাফালো, টরন্টোতে তাপমাত্রা প্রায় মাইনাস ১৪ ডিগ্রি। প্রচন্ড ঠান্ডার কারণে বাসিন্দাদের জন্য সতর্কবার্তাও জারি করা হয়েছে এসব স্টেটে।

গ্রান্ডফর্ক আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বিমান চলাচল বন্ধ রয়েছে ঘণ তুষারপাত ও কুয়াশার কারণে। এছাড়াও দেশজুড়ে বন্ধ রাখা হয়েছে প্রায় ২৭০০ বিমাননের ফ্লাইট ও ট্রেন যাত্রা। তাপমাত্রা নেমে এসেছে প্রায় মাইনাস ১৩ ডিগ্রির আশেপাশে। জাতীয় আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, মিডওয়েস্ট-নিউ ইংল্যান্ডে বেশ কিছু মানুষ গৃহবন্দি হয়ে পড়েছে। পুরো দেশজুরে শীতের প্রকোপে মারা গেছেন সর্বমোট ৫ জন। ৯ কোটিরও বেশি মানুষ রয়েছেন শূন্য ডিগ্রি তাপমাত্রারও নীচে। প্রশাসন তাদের বিভিন্ন পদক্ষেপ ও তৎপরতার সঙ্গে নজর রাখছেন গোটা আমেরিকার সর্বত্র।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Close