৩০০ আসনে ১৮শ ৪১ প্রার্থী

দলীয় প্রার্থী ১৭৪৫, স্বতন্ত্র ৯৬

আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোটের মাঠে লড়বে ১৮শ ৪১ প্রার্থী। এরমধ্যে স্বতন্ত্র প্রার্থী রয়েছে ৯৬ জন। দলীয় প্রার্থী ১৭শ ৪৫ জন। রিটার্নিং কর্মকর্তাদের পাঠানো তথ্য বিশ্লেষণ করে সোমবার নির্বাচন কমিশনের নির্বাচন পরিচালনা শাখা এ তথ্য জানিয়েছে।

গত রোববার (০৯ ডিসেম্বর) ছিল প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন। ২৮ নভেম্বর পর্যন্ত মোট ৩ হাজার ৬৫ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। এর মধ্যে ২ ডিসেম্বর যাচাই-বাছাইয়ে ৭শ ৮৬জনের মনোনয়ন বাতিল হয়ে যায়। ইসির কাছে আপিলে প্রায় আড়াইশো প্রার্থী প্রার্থিতা ফিরে পায়।

এবার সর্বােচ্চ কুমিল্লা-৩ অাসনে সর্বোচ্চ ১৫ জন ও সর্বনিম্ন কয়েকটি জেলায় তিনজন করে প্রার্থী রয়েছেন। ইতিমধ্যে গতকাল সোমবার প্রার্থিদের প্রতীক বরাদ্দ দিয়েছেন রিটার্নিং কর্মকর্তারা। নির্বাচন কমিশন সংসদ নির্বাচনের জন্য ৬৪টি প্রতীক সংরক্ষণ করেছে। এরমধ্যে ৩৯টি নিবন্ধিত দলকে নিজের প্রতীক এবং স্বতন্ত্র প্রার্থীদের অবশিষ্টগুলো থেকে প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

নির্বাচনী আচরণ বিধিমালা অনুযায়ী, প্রতীক পেয়েই প্রার্থিরা নির্বাচনী প্রচারণায় আনুষ্ঠানিকভাবে নামতে পারেন। প্রতীক পেয়ে প্রার্থিরা যারা এলাকায় নেমে পড়েছেন।

অনেকে পোস্টারও টানানো শুরু করেছেন। আচরণ বিধি ভঙ্গ করেও অনেককে মিছিল করতে দেখা গেছে। সব মিলিয়ে দেশব্যাপী ভোটের প্রচারের সামিল হয়েছেন প্রার্থি-সমর্থক-ভোটাররা।

নির্বাচন কমিশন জানিয়েছে, এবার ১৯ দিন প্রচার কাজ চালানোর জন্য সময় পাচ্ছেন প্রার্থী-সমর্থকরা। কেননা, প্রচার কাজ বন্ধ করতে হবে ২৮ ডিসেম্বর মধ্য রাত ১২টায়।

আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, বিএনপি, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ও জাতীয় পার্টি সবচেয়ে বেশি প্রার্থী দিয়েছে বলেও জানা যায়।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Back to top button
Close