কোন অতিথি’র আগমণ ঘটছে এবার “কারি অস্কারে”

এনাম চৌধুরী: বর্ণিল সাজে সাজানো হয়েছে সেন্ট্রাল লন্ডনের বাটারসি পার্ক! কাল সোমবার (২৬ নভেম্বর) সন্ধ্যা থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত টেমস এর তীরে বসবে ব্রিটেন তথা ইউরোপের হাই প্রেস্টিজিয়াস অ্যাওয়ার্ড কারী শিল্পের অস্কার খ্যাত “বৃটিশ কারি অ্যাওয়ার্ড’-এর ১৪ তম আসর! কারী কিং খ্যাত এনাম আলীর মননের অপূর্ব এ অনুষ্ঠানটি নিয়ে যেমন কৌতহল থাকে তেমনি একটি বিষয় জানার আগ্রহ সবার মধ্যে- কে আসছেন এবার কারী অস্কারে অতিথি হয়ে? অ্যাওয়ার্ড ফাউন্ডার এনাম আলী এমবিই ছাড়া অনুষ্ঠান শুরুর এক মিনিট আগেও কেউ জানতে পারে না কি থাকছে অনুষ্ঠানেl

আর এ কৌতুহলের কারণও রয়েছে! থাকবেইবা না কেন? ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেকে শুরু করে ডজন ডজন মন্ত্রীই শুধু যোগ দেন নাই কারী অস্কারে! যোগ দিয়েছেন রাজ্ পরিবারের সদস্যসহ বিশ্বের খ্যাতিমান অনেক সুপারস্টাররা!

স্বকীয় বৈশিষ্ঠে অনন্য ব্রিটিশ কারী অ্যাওয়ার্ডস নিয়ে তাই সবার মাঝেই আলাদা আগ্রহ দেখা যায়l প্রতি বছরই যেমন দেখা যায় নতুন নতুন অতিথি তেমনি উপস্থাপনায় ও দেখা যায় ব্রিটেনের মিডিয়া কাঁপানো সেরা উপস্থাপকদেরl বিখ্যাত বাটারসি পার্ক ও যেন বছরের এই একটি দিন তাই সুখ্যাত এবং ঝলমল হয়ে উঠে সেরাদের পদচারণায়l

কারী শিল্পের অস্কার ব্রিটিশ কারী অ্যাওয়ার্ডস অর্জন করা রীতিমত এক বিশাল সমুদ্র পাড়ি দেয়ার মত কাজ! ছয় থেকে সাত সদস্যের সম্পূর্ণ স্বতন্ত্র এবং স্বাধীন বিচারকদের বিচারে যে রেস্টুরেন্টটি ব্রিটিশ স্ট্যান্ডার্ড ধরে রেখে গ্রাহকের চাহিদা মেটানোর পাশাপাশি রন্ধনে কারী শিল্পের ঐতিহ্য তুলে ধরেন তারাই পেয়ে যান তাদের স্বপ্নের এ অ্যাওয়ার্ডসl

সাবেক ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন তাঁর এক বক্তব্যে বলেছিলেন, ‘কারিবিহীন একটি সপ্তাহ আজ যেমন কল্পনা করেনা কোনো বৃটিশ নাগরিক তেমনি চিকেন টিক্কা মসল্লাও আমাদের প্রিয় খাবার। যারা প্রতিদিন এ উন্নত খাবার পরিবেশন করেন তারা ‘সেরা ব্রিটিশ’।’ ব্রিটিশ বাংলাদেশীরা যে সেরা কিছু করতে পারে তার উজ্জল দৃষ্টান্ত হচ্ছে বৃটিশ কারি অ্যাওয়ার্ডস।

ব্রিটিশ কারি অ্যাওয়ার্ডস’র ফাউন্ডার এনাম আলী এমবিই’র সার্বিক ব্যবস্থাপনা ও তত্ত্বাবধানে কারি শিল্পের অস্কার খ্যাত এ অনুষ্ঠানটিতে এবারও উপস্থিত থাকবেন বিশ্ববিখ্যাত সেলিব্রেটিরা। শিল্প, সহিত্য, মিডিয়া, রাজনীতিবিদসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে সফল ব্যক্তিদের পদচারণায় ব্রিটিশ কারি অ্যাওয়ার্ডস’র ১৪’তম-এ আসরটি মুখরিত হয়ে উঠবে বলে আশা করছেন অনুষ্টানের কলাকুশলীরা।

ব্রিটেন ছাড়াও ইউরোপের বিভিন্ন দেশ থেকে প্রায় দু’হাজারের মত সৌভাগ্যবান অতিথি এবারের অনুষ্ঠান সরাসরি উপভোগ করতে পারবেন বলে মনে করা হচ্ছে।

বৃটিশ কারি অ্যাওয়ার্ডস- এর প্রযোজক এনাম আলী এমবিই’র সুযোগ্য কন্যা জাস্টিন আলী‘র প্রযোজনা এবং পুত্র জেফরী আলীর সার্বিক সহযোগিতায় বিশ্বমানের এ অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানটিতে ব্রিটেনের মূলধরার সংস্কৃতি অঙ্গনের সেরা শিল্পীদের পরিবেশনায় থাকবে মনোমুগ্ধকর সাংস্কৃতিক পরিবেশনা। বাংলাদেশের শিল্পিত পরিচয় তুলে ধরার পাশাপাশি এবার থাকবে কারী শিল্পীর প্রসার কি ভাবে ঘটবে বিশ্বময় সেটির একটি প্রতীকী নমুনা।

সাবেক ব্রিটিশ শিক্ষামন্ত্রী নিকি মর্গান এর ভাষায় “কারি আজ বৃটিশ হাউজ হোলড ব্রান্ড। এটি আজ শুধু ব্রিটেনে নয়, পুরো বিশ্বেই রপ্তানী হচ্ছে। ব্রিটেনের অর্থনীতিতে যোগান দিচ্ছে বিলিয়ন পাউন্ড। যা দিয়ে অর্থনীতি আরো সুদৃঢ় হচ্ছে।” নিকি মর্গানের এ সত্য উচ্চারণরণের সাহসী এক অভিযাত্রী এনাম আলী এমবিই কারী শিল্পকে বিশ্বময় পরিচিতি দিয়েছেন ব্রিটিশ কারি অ্যাওয়ার্ডস এর মাধ্যমে।

কারি শিল্পের অস্কার খ্যাত ব্রিটিশ কারি অ্যাওয়ার্ডস’র ফাউন্ডার এনাম আলী এমবিই বলেন, উদ্যম মানুষকে অনেক দূর এগিয়ে নিয়ে যায়! আমাদের পূর্ব পুরুষেরা আমাদের জন্য যে একটি সাফল্যের সিড়ি রেখে গেছেন সেটি হলো কারী শিল্পl তারা উদ্যোমী ছিলেন বলেই আমরা আজ এ শিল্পটিকে বিশ্বময় তুলে ধরতে পারছি। আমি প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি এ কাজটি ভিন্ন আঙ্গিকে তুলে ধরতে। আমরা চেষ্টা করলে অনেক কিছু করতে পারি, আমাদের জাতির জন্য, ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য। এটি আমাদের একটি স্বপ্ন আর স্বপ্নকে বাঁচিয়ে রাখতে জাতিকে হাল ধরতে হবে!

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Close