ইউরোপ জুড়ে আরও তীব্র দাবদাহের পূর্বাভাস

hot-weatherগত কয়েকদিন ধরে দাবদাহে অতিষ্ঠ ইউরোপের বাসিন্দাদের জন্য আবহাওয়া অধিদপ্তর থেকে কোনো সুসংবাদ নেই। বরং আগামী কয়েক দিনে তাপমাত্রা আরও বাড়তে পারে এবং তা অতীতের রেকর্ড ছাড়িয়ে যেতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে।
১৯৭৭ সালের জুলাই মাসে গ্রিসের এথেন্সে তাপমাত্র ৪৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস হয়েছিল। যা এখন পর্যন্ত ইউরোপে সর্বোচ্চ তাপমাত্রার রেকর্ড।
দাবদাহে সবচেয়ে খারাপ অবস্থা স্পেন, পর্তুগাল ও ইতালিতে। আফ্রিকা থেকে ভেসে আসা লু হাওয়ার কারণে স্পেন ও পর্তুগালে তাপমাত্রা বাড়ছে।
বিবিসি ওয়েদার জানায়,  শুক্রবার ও শনিবার দক্ষিণপশ্চিম স্পেন এবং দক্ষিণ ও দক্ষিণপূর্ব পর্তুগালে তাপমাত্রা ৪৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস উঠতে পারে।
পর্তুগালে সর্বোচ্চ তাপমাত্রার রেকর্ড ৪৭ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ২০০৩ সালে এই তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছিল। গত বছর জুলাইয়ে স্পেনের তাপমাত্রা ৪৭ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস হয়েছিল, যা দেশটিতে রেকর্ড।  স্পেনের আবহাওয়া অধিদপ্তর আগামী অন্তত রোববার পর্যন্ত দেশজুড়ে বিশেষ করে দক্ষিণপূর্বাঞ্চলে বিশেষ সতর্কতা জারি করেছে। ইতালির আবহাওয়া অধিদপ্তরও দেশের মধ্যাঞ্চল ও উত্তরাঞ্চলে ‘রেড এলার্ট’ জারি করেছে।
যুক্তরাজ্যের দক্ষিণপূর্বাঞ্চলে তাপমাত্রা ৩৩ ডিগ্রি সেলসিয়াসে পৌঁছাতে পারে। সুইডেনের কেবনেকাইসা পর্বতের সর্বোচ্চ চূড়ায় একটি হিমবাহ স্বাভাবিকের তুলনায় দ্রুতগতিতে গলতে শুরু করেছে।
নরওয়ের পাবলিক রোড অ্যাডমিন্সিট্রেশন চালকদের রোদ থেকে রক্ষা পেতে বিভিন্ন টানেলের ভেতর আশ্রয় নেওয়া বল্গাহরিণ ও ভেড়ার পাল দেখে গাড়ি চালানোর অনুরোধ করেছে। দাবদাহের কারণে ইউরোপ জুড়ে ফসলের ক্ষতিও হচ্ছে বলে জানায় বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Close