উৎপাদনশীল খাতে রেমিট্যান্স ব্যবহারের উদ্যোগ

প্রবাসীরা যথেষ্ট পরিমাণ রেমিট্যান্স পাঠাচ্ছে, যা উৎপাদনমুখী খাতে বিনিয়োগ করা হচ্ছে না। তাই উৎপাদশীল খাতে রেমিট্যান্স ব্যবহারের উদ্যোগ নিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এমনটিই জানিয়েছেন গভর্নর ড. আতিউর রহমান।
মঙ্গলবার সকালে রাজধানীর সোনারগাওঁ হোটেলে ‘এনআরবি ট্যালেন্ট ইনভেস্টমেন্ট অ্যান্ড রেমিট্যান্স ফর ডেভলপমেন্ট’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা জানান।
গভর্নর বলেন, ‘রেমিট্যান্স আর উপযুক্ত প্রকল্প পেলে বিদেশে বাংলাদেশি বিনিয়োগকারীদের সকল ধরনের সহায়তা করবে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।’
তিনি জানান, বাংলাদেশ সরকার ইকোনমিক্যাল জোন বাস্তবায়ন করতে যাচ্ছে। প্রবাসীরা (এনআরবি) ইকোনমিক্যাল জোনে বিনিয়োগ করলে তাদের সব ধরনের সুযোগ দেবে বাংলাদেশ ব্যাংক।
গভর্নর বলেন, ‘এখন রেমিট্যান্স শুধু অনুৎপাদনশীল খাতে নয় উৎপাদনশীল খাতেও ব্যয় হচ্ছে।  দেশের জিডিপিতে দেশের রেমিট্যান্সের অবদান ১০ শতাংশ। এত বড় রাজনৈতিক অস্থিরতার পরও  দেশের অর্থনীতি ঘুরে দাঁড়িয়েছে। ভবিষ্যতে এই ধারা অব্যাহত রাখতে আমাদের জনশক্তি উন্নয়ন ব্যুরোকে আরো সচেতন হতে হবে, যাতে করে দক্ষ মানবশক্তি আমরা পাঠাতে পারি।’
গভর্নর জানান, দেশের রেমিট্যান্স প্রবাহ বাড়াতে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে ৩৭টি ব্যাংকের এক্সচেঞ্জ হাউজ রয়েছে। মিয়ানমারের সঙ্গে অর্থনৈতিক সম্পর্ক উন্নয়নের সুযোগ কাজে লাগাতে দেশটিতে এক্সচেঞ্জ খোলার চিন্তাভাবনা চলছে ।
অনুষ্ঠানে ব্র্যান্ডিং বাংলাদেশ ক্যাটাগরিতে পাঁচ ব্যাংক ও একটি সংগঠনকে পুরস্কার দেয়া হয়। এই ক্যাটাগরিতে পুরস্কার পেয়েছে এবি ব্যাংক, ঢাকা ব্যাংক, এক্সিম ব্যাংক, ইসলামী ব্যাংক, ট্রাস্ট ব্যাংক ও বিকেএমইএ।
এছাড়া রেমিট্যান্স পাঠানোর দিক থেকে শীর্ষ ১০ ব্যাংককে পুরস্কার দেয়া হয়। এই ক্যাটাগরিতে স্বর্ণ পদক পেয়েছে ইসলামি ব্যাংক, রৌপ্য পদক পেয়েছে অগ্রণী ব্যাংক ও ব্রোঞ্জ পদক পেয়েছে সোনালী ব্যাংক। এছাড়া সাধারণ ক্যাটাগরিতে পুরস্কার পেয়েছে জনতা, ন্যাশানাল, ব্র্যাক, পূবালী, প্রাইম ও সিটি ব্যাংক।
এনআরবি সেন্টারের চেয়ারপারসন এমএস সেকিল চৌধুরির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত ড্যান ডাব্লিউ মজিনা, বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. ফরাস উদ্দিন ও অর্থনীতিবিদ ড. ইব্রাহিম খালিদ ও বিভিন্ন ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Back to top button
Close