উপজেলা নির্বাচনে প্রতীক চূড়ান্ত

আসন্ন উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে প্রার্থীদের জন্য ৩০টি প্রতীক চূড়ান্ত করেছে নির্বাচন কমিশন। বরাদ্দকৃত প্রতীকের মধ্যে চেয়ারম্যান পদের প্রার্থীদের জন্য ১০টি, ভাইস-চেয়ারম্যান পদের প্রার্থীদের জন্য ১০টি ও মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান পদে প্রার্থীদের জন্য ১০টি প্রতীক চূড়ান্ত করে পরিপত্র জারি করা হয়েছে।
নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট শাখার দায়িত্বপ্রাপ্ত সহকারী সচিব মো. আশফাকুর রহমান বলেন, ‘৩০টি প্রতীক ব্যবহার করে উপজেলা পরিষদ নির্বাচন করা হবে। তবে কোনো উপজেলায় একই পদে ১০ জনের বেশি প্রার্থী হলে সে উপজেলায় অতিরিক্ত প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হবে। প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার শেষে চূড়ান্ত প্রার্থীদের মধ্যে রিটার্নিং অফিসার প্রতীক বরাদ্দ দেবেন।’
চেয়ারম্যান পদের প্রার্থীদের জন্য নির্ধারিত ১০টি প্রতীক হলো- আনারস, কাপ-পিরিচ, চিংড়ি মাছ, মোটর সাইকেল, ঘোড়া, টেলিফোন, দোয়াত-কলম, ব্যাটারি, হেলিকপ্টার ও ফেজ টুপি।
ভাইস চেয়ারম্যান পদের জন্য নির্ধারিত ১০টি প্রতীক হলো- চশমা, টাইপরাইটার, তালা, টিউবওয়েল, মাইক, উড়োজাহাজ, টিয়াপাখি, জাহাজ, বই ও বৈদ্যুতিক বাল্ব।
মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যানের জন্য ১০টি প্রতীক হলো- প্রজাপতি, হাঁস, ফুটবল, ক্যামেরা, কলস, পদ্মফুল, ফুলের টব, বৈদ্যুতিক পাখা, তীর-ধনুক ও সেলাইমেশিন।
প্রতীক বরাদ্দের বিষয়ে স্থানীয় সরকার (উপজেলা পরিষদ) নির্বাচন বিধিমালায় বলা হয়েছে, প্রার্থীদের জন্য নির্ধারিত প্রতীক থেকে পছন্দমত যেকোনো একটি প্রতীক মনোনয়নপত্রে উল্লেখ করবেন।
নির্বাচনী প্রতীক বরাদ্দের ক্ষেত্রে প্রার্থীদের মধ্যে দ্বন্দ্ব দেখা দিলে রিটার্নিং অফিসার যতদূর সম্ভব প্রার্থীদের পছন্দের প্রতি লক্ষ্য রেখে প্রতীক বরাদ্দ দেবেন। প্রয়োজনে লটারির মাধ্যমে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবেন। এ বিষয়ে রিটার্নিং অফিসারের সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত। বরাদ্ধকৃত প্রতীকের অধিক প্রার্থী হলে কমিশন তালিকায় নতুন প্রতীক সংযোজন করতে পারবে।
রিটার্নিং অফিসার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের নাম বাংলা বর্ণমালার ক্রমানুসারে সাজিয়ে তার বিপরীতে বরাদ্দকৃত প্রতীক সুস্পষ্টভাবে উল্লেখ করবেন।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Back to top button
Close