সেই বিরক্তিকর ওয়াজ নিয়ে সমালোচনার ঝড়! (ভিডিও)

সম্প্রতি ফেসবুক ও ইউটিউবে মুফতী মাজহারুল ইসলাম মাজহারী নামে এক মুফতির বিরক্তিকর ওয়াজ ভাইরাল হয়েছে। ফেসবুক ভাইরাল হওয়া ওই ওয়াজে দেখা যাচ্ছে, নরসিংদীতে অনুষ্ঠিত ওয়াজ মাহফিলে এই মাওলানা সারাক্ষণ অপ্রাসঙ্গিক কথায় কান্না করে ওয়াজ করছেন। কান্নাস্বরে তিনি কোথায় কোনদিন ওয়াজ তারও বর্ণনা করেন। এছাড়া তার ভারতে ওয়াজ করতে গিয়েছেন দাবি করে কান্না করতে থাকেন।এ নিয়ে ফেসবুকে হাস্যরসের সৃষ্টি হয়।

ওয়াজ মাহফিলে এরকম নিজের ব্যক্তিগত হাজারো কথা বলে, ওয়াজের শুরে কান্না করতে থাকেন এই হুজুর। আমার ওয়াজ করতে রাজশাহী যাওয়ার কথা ছিল….বগুড়া যাওয়ার কথা ছিল……..সুর করে টেনে টেনে নানাবিধ ভঙ্গিতে এসব বলতে থাকেন ওই হুজুর। ফেসবুকে একজন রসিকতা করে লিখেছেন, একটি হেদায়াতি আলোচনা! আহা! যতবার শুনি মন্ত্রমুগ্ধ হয়ে যাই। একেই তো বলে ওয়াজ মাহফিল!! আপনিও শুনে দেখতে পারেন। নিশ্চিত জীবন পরিবর্তন (?)।

ওয়াজটি ইউটিউবে প্রথম প্রকাশকারী ইউটিউব চ্যানেল তাকওয়া মিডিয়ার এক কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, ভাই, এই লোক (মুফতি মাজহারি নামের বক্তা) এ ওয়াজটি আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশ করার জন্য বারবার তাগাদা দিচ্ছিল। আমরা ওই ওয়াজটি না শুনেই আপ করে দিয়েছিলাম। পরে ওয়াজটি নিয়ে সমালোচনার পর তা আমাদের চ্যানেল থেকে ডিলিট করে দিয়েছিলাম। কিন্তু আমাদের কাছ থেকে যারা কপি করে আপ করেছে তাদের ভিডিওগুলো এখনও ইউটিউব ও ফেসবুকে রয়ে গেছে।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশের ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা ওয়াজ শুনতে ভালোবাসেন, ওয়াজের কথা শুনলেই অনেক মানুষ দূর-দুরন্তে ছুটে যান। তবে কিছু আলেম নামধারী ব্যক্তিদের জন্য তাদের সম্মান ও মর্যাদাহানি হচ্ছে। তাদের হাস্যকর ওয়াজের কারণে ইসলামের সৌন্দর্য ও ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ হচ্ছে। ওয়াজ হলো একটি ধর্মীয় বিষয়। এটিকে কৌতুক বা বিনোদন বানানো যাবে না। মানুষের ধর্মীয় ও নৈতিক উন্নতি হল ওয়াজের মূল বিষয়। তাই এক্ষেত্রে বক্তাদের অনেক বিষয় লক্ষ্য রাখতে হবে।

আরও পড়ুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন...

Close
Back to top button
Close